ডেস্ক: রাজনীতির মাঠে মুনমুনকে নিয়ে চর্চা কম নেই। গতবার বাঁকুড়া পরিবর্তে এবার তাঁকে পাঠানো হয়েছে আসানসোলে বাবুলের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে। সেই খবর শোনার পর ইতিমধ্যেই মুনমুনকে ‘সেন-সেশনাল’ বলে খোটা দিয়েছেন বাবুল। পাশাপাশি, তাঁর সঙ্গে কফি খাওয়ারও ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এতদূর অবধি তাও বা চলছিল কিন্তু হঠাৎ বাধল বিপত্তি। আসানসোলে সাংবাদিক বৈঠক করতে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনেই খসে পড়ল মুনমুনের শাড়ির আঁচল। আর সেই মুখরোচক ইস্যুকে হাতিয়ার করে মুনমুনকে সোশ্যাল মিডিয়ায় অশ্লীল ও কুরুচিকর আক্রমণ শানালেন নেটিজেনরা।

সোমবার আসানসোলে প্রচারের উদ্দেশ্যে গিয়েছিলেন সেখানকার তৃণমূল প্রার্থী মুনমুন সেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন, তৃণমূল নেতা মলয় ঘটক, জিতেন্দ্র তিওয়ারি, তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো নেতৃত্বরা। তখনই ঘটে বিপত্তি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে বলতে হঠাৎ-ই গায়ের থেকে খসে পড়ে মুনমুনের শাড়ির আঁচল। মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে সেই ভিডিও। এরপরই শুরু হয় কুকথার বন্যা। জঘন্য ভাষায় সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করা হয় মুনমুনকে।

সুযোগের সদব্যবহার করতে ছাড়েনি বিজেপিও। কুকথা না হলেও আক্রমণের পথে হেঁটে বিজেপির একাংশের দাবি, যে নিজের শাড়ির আঁচল সামলাতে পারে না। সে লোকসভা কী করে সামলাবেন। তবে মুনমুনের পাশে দাঁড়িয়ে কুরুচিকর এহেন আক্রমণের নিন্দা করেছেন অনেকেই। ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে তৃণমূলও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here