kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বেশ কিছুদিন আগের কথা, উত্তরপ্রদেশের রামকোলার বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী সুনীতা সিং গৌড় নিদান দিয়েছিলেন, দেশকে রক্ষা করতে হলে হিন্দু পুরুষদের উচিত মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করা! এই মন্তব্যের পর দেশজুড়ে নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছিল। মোদী সরকারের এই নেত্রীর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন সকলে। কিন্তু মুসলিম বিরোধী মানসিকতা থেকে সরে আসেনি বিজেপি নেতারা। ফের মুসলিম বিরুদ্ধ মন্তব্য করে শিরোনামে বিজেপির এক বিধায়ক। এবার জনসংখ্যা প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে আপত্তিকর কথা বললেন তিনি।

উত্তরপ্রদেশের এক বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং-এর বক্তব্য,

মুসলিম ধর্মের অনেকের ৫০টি করে স্ত্রী ও ১০০টি করে সন্তান থাকে, যা সমাজের পক্ষে তো ক্ষতিকরই এবং অত্যন্ত পাশবিক প্রবণতা। বিধায়কের কথায়, চারটির বেশি সন্তানের জন্ম দেওয়াটাই অস্বাভাবিক ব্যাপার, কিন্তু মুসলিমরা সেই স্বাভাবিকতার বাইরে।

সংখ্যালঘু সম্প্রদায়দের নিয়ে এহেন মন্তব্য স্বভাবতই একটা চাপা বিতর্ক সৃষ্টি করেছে দেশজুড়ে।

হিন্দু-মুসলিম নিয়ে বরাবরই খেলে এসেছে বিজেপি, এখনও তা বহাল। বিশেষ করে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর মোদীর ‘ভক্ত’দের দেশভক্তিও প্রবলভাবেই বেড়েছে। বিভিন্ন জায়গায় সংখ্যালঘুদের ধরে তাদের দিয়ে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানো, মারধর করা, নিয়ম হয়ে গিয়েছে। প্রতিবাদ তো দূর, দু’এক কথা বলতেও শোনা যায়নি বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বকে। বরং একের পর এক সংখ্যালঘু বিরোধী মন্তব্য করে দেশের মধ্যে এক অস্থিরতার বাতাবরণ তৈরি করছে গেরুয়া মন্ত্রী-বিধায়করা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here