সাবধানতা আর আগ্রাসনের মিশেলেই এসেছে সাফল্য, বললেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ রোহিত

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ম্যাচ হয়ে রইল ‘হিটময়’। প্রথমবার টেস্টে ওপেন করতে নেমে রোহিত শর্মা যে সব কীর্তি করে দেখিয়েছেন, তা কিংবদন্তিদেরও লজ্জায় ফেলে দেবে। টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। একই সঙ্গে দলকে প্রথম টেস্ট জয়ের ভিতও গড়ে দিয়েছেন। ফলে ম্যান অব ম্যাচ এবং মোমেন্ট এখন রোহিত। ১৭৬ ও ১২৭ রানের জোড়া সেঞ্চুরি করে অবশ্য রানের ক্ষিদে একটুও কমেনি তাঁর। ম্যাচ জেতানো দু’টো ইনিংস খেলে নিয়ে তাই রোহিতই বলতে পারেন, ব্যাটিং উপভোগ করাটাই ছিল তাঁর আসল।

ম্যাচের পর রোহিত বলেন, ‘আমি শুধু ক্রিজে নিজের সেরাটা দিতে চেয়েছিলাম। ওপরে সুযোগ পেয়ে ভালো লাগছে, সুযোগের জন্যও ধন্যবাদ জানাতে চাই। কেননা এটা আগে কখনই করিনি আমি। মূল লক্ষ্য ছিল ম্যাচটা জেতা এবং আমরা শেষ অব্দি সব ঠিকঠাকই করেছি।’ রক্ষণাত্মক থেকে আক্রমণ করে যাওয়াই যে তাঁর সাফল্যের চাবিকাঠি সেটাও জানিয়েছেন হিটম্যান। রোহিতের কথায়, ‘সাবধানী থেকে আগ্রাসী হওয়াটাই আমার খেলার ধরন। যদিও পুরোটাই ম্যাচের পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে। টেস্টে এমন অনেক রেকর্ডই আছে সেগুলোর সম্পর্কে আমার কোনও ধারণা নেই। আমার লক্ষ্য ছিল ব্যাটিং উপভোগ করা এবং দলকে ভালো জায়গায় পৌঁছে দেওয়া।’

এদিন আরও একটি বড় রহস্য খোলসা করেন রোহিত। যখন থেকে তিনি লাল বলে ক্রিকেট খেলার অনুশীলন শুরু করেন তখনই নাকি টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে জানিয়েছিল যে আগামীদিনে ওপেন করতে হতে পারে। আর সেই কারণে প্র্যাক্টিস চলাকালীন নতুন বলেই অনুশীলন করতেন তিনি। ‘বেশ কয়েক বছর আগেই আমি জানতে পেরেছিলাম যে আমায় হয়তো ওপেন করতে হতে পারে। তখন আমি টেস্ট ম্যাচ খেলতামও না। তাই বুঝেছি, আমি লাল বা সাদা যেই বলে খেলি না কেন, প্রথমে সাবধান থাকতে হবে। প্রাথমিক বিষয়গুলি মাথায় রাখতে হবে তাহলেই সাফল্য আসবে। আমি নিজের ওপর বিশ্বাস রেখেছিলাম, তাই ভাগ্যও আমার সঙ্গ দিয়েছে।

২০১৩ সাল থেকে ফাটিয়ে ওয়ান ডে খেলছিলেন শর্মাজি। কিন্তু টেস্টে জায়গা কিছুতেই পাকা করে উঠতে পারেননি। বাকি সব বিকল্প ব্যর্থ হওয়ায় রোহিতকে খানিকটা পরীক্ষামূলকভাবেই তাই প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে রোহিতকে ওপেন করতে নামানো হয়েছিল। তিনি ‘সেওয়াগ-২’ হতে পারেন কিনা দেখার জন্য। রোহিত যা নমুনা দেখালেন তাতে প্রত্যাশা বেড়ে যাবে বৈকি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here