ডেস্ক: দিঘায় রেল লাইনের ধার থেকে উদ্ধার হওয়া ক্ষতবিক্ষত এক যুবকের দেহ ঘিরে রহস্য দেখা দিয়েছে৷ রাহুল সাউ নামে বেহালার ওই বাসিন্দা চাকরি করতেন বীরভূমের বোলপুরে৷ উনিশ বছরের ওই যুবককে খুন করা হয়েছে বলে পরিবারের অভিযোগ৷ গত ডিসেম্বরে বোলপুরে চাকরি পান রাহুল৷ এক বন্ধুর সঙ্গে তিনি রামপুরহাটে যান৷ এপ্রিলের প্রথম দিকে রাহুল মাকে জানান, তাঁকে বোলপুরে যেতে হচ্ছে৷ পরিবারের বক্তব্য, তারপর থেকে আর ফোনে তাঁকে পাওয়া যায়নি৷

 

বারবার ফোন করে রাহুলের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে রাহুলের বন্ধুকে ফোন করেন তাঁর মা৷ রাহুলের বন্ধু জানান, রাহুল বোলপুরে নেই৷ কলকাতায় ফিরছে৷ কিন্তু ফেরেননি রাহুল৷ এরপর এমাসের সাত তারিখে জিআরপিতে অভিযোগ দায়ের করে পরিবার৷ অভিযোগ জানানো হয় লালবাজারে৷ অবশেষে কাঁথি জিআরপির কাছ থেকে খবর পান রাহুলের পরিবার৷ সেখানে গিয়ে দেহ শনাক্ত করে তাঁর বাড়ির লোকজন৷ রাহুলের পকেটে একটি ছুটির আবেদনপত্র পাওয়া গিয়েছে৷ রাহুলের পরিবার ওই আবেদনপত্র জাল বলে জানায়৷ তাদের অভিযোগ, রাহুলকে ঠান্ডা মাথায় খুন করা হয়েছে৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here