জনতার তাড়ায় ঝোপে ঝাঁপ পুলিশের, দুর্ঘটনা ঘিরে বিক্ষোভের মুখে পুলিশ

0
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, কৃষ্ণনগর: জনতার তাড়ায় এই বাংলায় অনেকবারই দেখা গিয়েছে উর্দিধারীদের পুকুরে ঝাঁপ দিয়ে প্রাণ বাঁচাতে। দেখা গিয়েছে বাড়িতে ঢুকেও জীবন বাঁচাতে। এবার দেখা গেল ক্ষিপ্ত জনতার তাড়ায় বনো গাছে ডাকা রাস্তার ধারে থাকা গর্তে এক উর্দিধারীকে ঝাঁপ দিতে। ঘটনাস্থল নদিয়া জেলার নবদ্বীপ থানার গৌরনগর এলাকা। রবিবার সকালে এই এলাকায় দুর্ঘটনায় এক যুবকের মৃত্যুকে ঘিরেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকার পরিবেশ। তা সামাল দিতে গিয়েই পাল্টা বিক্ষোভের মুখে পড়েন উর্দিধারীরা।

জানা গিয়েছে, রবিবার সকালে নবদ্বীপ থানার গৌরনগর এলাকায় বালি ভর্তি একটি লরির ধাক্কায় এক সাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়। এই দুর্ঘটনার জেরে উত্তেজিত জনতা রাজ্যসড়ক অবরোধ করে। ফলে কৃষ্ণনগর থেকে নবদ্বীপগামী রাজ্য সড়ক যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সেই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে ক্ষিপ্ত জনতা পুলিশকে পাল্টা তাড়া করে। সেই সময়েই এক পুলিশ কর্মীকে দেখা যায় রাস্তার পাশে থাকা বুনো গাছে ঢাকা গর্তে কার্যত প্রাণ বাঁচাতে ঝাঁপ দিতে।

সূত্রের খবর, নবদ্বীপ থানার আনন্দবাসের বাসিন্দা ঝন্টু মন্ডল(২৫) রবিবার সকালে সাইকেল চালিয়ে নিমতলা বাজারে যাচ্ছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় নবদ্বীপ থেকে কৃষ্ণনগরগামী একটি বালি বোঝাই একটি লরি তাকে ধাক্কা মারে। পরে স্থানীয় মানুষজন তাকে নবদ্বীপ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপরই স্থানীয় মানুষজন এর মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হয়। উত্তেজিত জনতা কৃষ্ণনগর-নবদ্বীপ রাজ্য সড়ক অবরোধ করে। ঘটনাস্থলে নবদ্বীপ থানার পুলিশ গেলে পুলিশকে তাড়া করে ক্ষুব্দ জনতা। পরে কৃষ্ণনগর থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ বালির গাড়িটি পুলিশের তাড়া খেয়ে পালানোর সময় এই ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here