আন্দোলনের নামে ধ্বংসলীলা চালানো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নবান্নর

0
bengali news nabanna

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদের আগুন উত্তাপ ছড়িয়েছে এরাজ্যেও। ক্রমশই জটিল হচ্ছে পরিস্থিতি। শুক্রবারের পর শনিবারও সকাল থেকে বিভিন্ন জায়গায়, ভাঙচুর, অবরোধ, অগ্নিসংযোগের খবর পাওয়া গিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকালই শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের আহ্বান জানিয়েছিলেন।

কিন্তু সেই আবেদনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই এদিন সকাল থেকে ফের বিক্ষোভে মেতে ওঠে আন্দোলনকারীরা। যার জেরে দুপুরে কিছুটা কঠিন অবস্থান গ্রহণ করেন তৃণমূল নেত্রী। এক বিবৃতি দিয়ে জানান, ‘গণতান্ত্রিক পথে আন্দোলন করুন, কিন্তু আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। পথ অবরোধ, রেল অবরোধ করবেন না। সাধারণ মানুষের ভোগান্তি বরদাস্ত করা হবে না। যাঁরা গন্ডগোল করছেন, রাস্তায় নেমে আইন হাতে তুলে নিচ্ছেন, তাঁদের কাউকে ছেড়ে দেওয়া হবে না। বাসে আগুন লাগিয়ে, ট্রেনে পাথর ছুড়ে, সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করলে, আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তবে এতেও বিশেষ কাজ হয় না। নিজেদের মেজাজেই এদিন সন্ত্রাস চালান আন্দোলনকারীরা। মুর্শিদাবাদের কৃষ্ণপুরে চার থেকে পাঁচটি ট্রেনে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। রাজ্যে বেড়ে চলা একের পর ঘটনায় শেষ অব্দি এবার নড়েচড়ে বসছে নবান্ন। যারা এই বিধ্বংসী কাজ করেছেন তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে।

সূত্রের খবর, যারা আজ বাস জ্বালিয়েছেন বা স্টেশন ভাঙচুর করছেন, বা সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নবান্ন। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে আন্দোলন করা যেতে পারে। কিন্তু রাস্তা-রেল অবরোধ করা যাবে না।। পুলিশ প্রশাসন কঠোর হাতে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে নামছে। আশা করা যাচ্ছে আগামীকালের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় যাবে। রেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে সবরকম সহযোগিতা করা হচ্ছে বলে নবান্ন সূত্রে খবর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here