kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: শরতের ভোর, শিউলির সুবাশ, বিন্দু বিন্দু শিশির কনা, চেনা ছকে প্রতিবছরের মতো এবারও পিতৃপক্ষের অবসান ঘটিয়ে শুরু হল দেবী পক্ষের সূচনা। প্রতিবারের মতো এবারও বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের মহিষাসুরমর্দিনী স্তোত্রপাঠ দিয়ে ঘুম ভাঙল বাঙালির।

শনিবার ভোর থেকেই গঙ্গার ঘাটে ভিড় জমিয়েছেন বহু মানুষ। পা ফেলার জায়গা নেই বাগবাজার, শোভাবাজার, আহারিটোলার ঘাটে। শুধু শহর কলকাতা নয়, জেলাগুলিতেও দেখা গিয়েছে একই চিত্র। পূর্ব পুরুষকে আহ্বান জানিয়ে গঙ্গায় তর্পন সেরেছেন মানুষ। তবে শহরের জনপ্রিয় ঘাটগুলিতে রাত থেকেই ভিড় জমতে দেখা গিয়েছে। দুর্ঘটনা এড়াতে ছিল যথেষ্ট পরিমাণ পুলিশি নিরাপত্তাও। তবে মহালয়ার পুণ্য তিথিতে এদিন রাজনৈতিক চাপানউতোরও বেশ দেখা গিয়েছে শহরে। এদিন বাগবাজারের গঙ্গা ঘাটে তর্পণ করতে দেখা গিয়েছে বিজেপি সর্বভারতীয় কার্যনির্বাহী সভাপতি জেপি নড্ডাকে। তালিকায় ছিলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ও।

উল্লেখ্য, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে রাজনৈতিক হিংসার জেরে মৃত বিজেপি সদস্যদের পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে রাতেই গঙ্গার ঘাটে উপস্থিত হন জেপি নাড্ডা। এরপর তাদের সঙ্গে নিয়ে বাগবাজারের গঙ্গা ঘাটে উপস্থিত হন জেপি নাড্ডা। একাধিক বিজেপি কর্মী সমর্থকদের সঙ্গী করে সারেন তর্পণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here