kolkata bengali news

ডেস্ক: দলীয় নেতাদের বাসভবনে আয়কর দফতরের অভিযানের বিরুদ্ধে ধর্নায় বসলেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। বুধবার রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক গোপাল কৃষ্ণ দ্বিবেদীর দফতরের সামনে ধরনায় বসেন তিনি। নির্বাচনের আগে বেছে বেছে তেলেগু দেশম নেতাদের বাড়িতে আয়কর দফতরের অভিযানকে বেআইনি এবং অনৈতিক বলেও উল্লেখ করেন।

নাইডুর অভিযোগ, একপেশে অভিযান চালাচ্ছে আয়কর দফতর। ভোটের সময়ে শুধুমাত্র একটিই রাজনৈতিক দল তেলেগু দেশমের নেতাদেরই টার্গেট করেছে আয়কর অফিসাররা। কিন্তু সবাইকেই সমান ভাবে দেখা উচিত। এদিন নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ উগড়ে দেন নাইডু। তিনি বলেন, প্রশাসনিক আমলা ও পুলিশ কর্তাদের ইচ্ছেমতো বদলি করছে কমিশন। ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টি অভিযোগ করার সঙ্গে সঙ্গে কোনও রকম সত্যতা যাচাই না করেই কমিশন এক পুলিশকর্তাকে বদলি করেছে। কোনও কারণ ছাড়াই শ্রীকাকুলামের জেলাশাসক ও পুলিশ সুপার, কাডাপ্পার পুলিশ সুপার, ডিজি (পুলিশ ইনটেলিজেন্স)-কে বদলি করেছে নির্বাচন কমিশন। এসব নিয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে চিঠিও পাঠিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার দলের সাংসদ গাল্লা জয়দেবের একাধিক বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে আয়কর দফতর। এতে ক্ষুব্ধ হন নাইডু।

এদিন রাজ্য নির্বাচন আধিকারিকের দফতরে ধর্নায় বসেন। অবস্থান মঞ্চ থেকে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন তিনি। নাইডু বলেন, গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে চায় নরেন্দ্র মোদী। এজন্যই আমি ‘সেভ ডেমোক্রেসি, সেভ ইন্ডিয়া’ কর্মসূচি নিয়েছি। ভয় পেয়েছেন মোদী। নির্বাচন কমিশনের দফতর এখন বিজেপির দফতর হয় গিয়েছে। এটা মেনে নেওয়া হবে না। তাঁর অভিযোগ, কারণ ছাড়াই প্রশাসনিক কর্তা ও পুলিশ কর্তাদের বদলির নির্দেশ দিয়ে অগণতান্ত্রিক কাজ করছে নির্বাচন কমিশন। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ১৭৫ আসনের অন্ধ্রপ্রদেশ বিধানসভা ভোটগ্রহণ হবে। একই সঙ্গে ভোটগ্রহণ হবে রাজ্যের লোকসভা কেন্দ্রগুলিতেও। ফল ঘোষণা হবে ২৩ মে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here