news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের উপর দিয়ে গত বুধবার বয়ে গিয়েছে সুপার সাইক্লোন ‘আমপান’। এই ঘূর্ণিঝড়ের ফলে কার্যত তছনছ হয়ে গিয়েছে গোটা পশ্চিমবঙ্গ। গতকাল সাংবাদিক বৈঠকে সেই ক্ষয়ক্ষতির আভাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকালই তার অনুরোধ ছিল এই সুপার সাইক্লোনের ক্ষয়ক্ষতির পর বর্তমানে রাজ্যের কী অবস্থা হয়েছে সেটা দেখে দ্রুত বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করুন প্রধানমন্ত্রী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথাই মান্যতা দিয়ে রাজ্যে এসে আমপান বিদ্ধস্ত এলাকা পরিদর্শন করলেন প্রধানমন্ত্রী এবং এই দুর্যোগ পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসাও করলেন। এদিন হেলিকপ্টার করে আকাশপথে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে দেখে বসিরহাটে প্রশাসনিক বৈঠক করে সংবাদমাধ্যমকে মোদী জানান, “কোভিডের সঙ্গে লড়াই করতে গেলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। আবার আমপানের সঙ্গে লড়াই করতে গেলে সাধারণ মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যেতে হবে। এরকম কঠিন পরিস্থিতিতে মমতাজির নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গ খুব ভালো লড়াই করছে। এই পরিস্থিতিতে আমরা সবাই ওঁদের সঙ্গে আছি।”

এদিন মোদী আমপান মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গকে ১০০০ কোটি টাকা কেন্দ্রের তরফ থেকে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করে বলেন, “রাজ্যে ও কেন্দ্র দুর্গত মানুষদের পাশে রয়েছে। আশু পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য ১ হাজার কোটি টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে। সাইক্লোন আমপান কতটা ক্ষতি করেছে তা খতিয়ে দেখতে একটি কেন্দ্রীয় দল আসবে। ত্রাণ ও পুনর্গঠনের দিকে নজর দেওয়া হবে। আমরা চাই পশ্চিমবঙ্গ এগিয়ে যাক।”

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা আর্থিক প্যাকেজ প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “উনি ১ হাজার কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের কথা ঘোষণা করেছেন। তবে সেটা অগ্রিম নাকি গোটা প্যাকেজ সেটা বলেননি। উনি বলেছেন সেটা পরে জানাবেন। আমরা জানিয়েছি, আপনি বলবেন, আমরা তথ্য দিয়ে দেব।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here