kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ইতিহাস ছোঁয়ার কয়েক মুহূর্ত আগে ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে যায় ইসরোর৷ এরপর বিক্রমের নাগাল পাওয়া গেলেও আর যোগাযোগ স্থাপন করা যায়নি৷ অবশেষে ডেডলাইন পেরিয়ে যাওয়ায় সে আশা সেগুড়ে বালি৷ শুক্রবার ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (নাসা) জানায়, ইসরোর সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগে চন্দ্রযান ২ এর ল্যান্ডারের হার্ড ল্যান্ডিং হয়েছিল৷ মার্কিন স্পেস এজেন্সি লুনার রোজোনেন্স অর্বিটার ক্যামেরা যে ছবি তুলেছে, তা প্রকাশ করেছে৷ সব কিছু পরিকল্পনা মতো হচ্ছিল৷ চাঁদের মাটি ছোঁটার ২.১ কিলোমিটার ওপরে ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে যায়৷ পরে জানা যায় ল্যান্ডার বিক্রমের হার্ড ল্যান্ডিং হয়েছিল৷ কিন্তু তার সফট ল্যান্ডিং হওয়ার কথা ছিল৷ এমনটা হলে এই অঘটন ঘটত না৷

চাঁদের দক্ষিণ মেরু সারা বিশ্বের কাছে অজানা৷ এখানে অবতরণ করে চন্দ্রযান ২ নতুন ইতিহাস তৈরি করত৷ এর আগে চাঁদের এই অংশের রহস্য উন্মোচনের চেষ্টা করেনি কেউ৷ ফলে এক্ষেত্রে ইসরো এমন উদ্যোগ নিয়েছিল প্রথম৷ মার্কিন গবেষণা সংস্থা যে ছবি প্রকাশ করেছে, তা চাঁদের দক্ষিণ মেরু থেকে ৬০০ কিলোমিটার দূরের৷ ল্যান্ডিং এরিয়র যে ছবি উঠেছে, তখন সেখানে আবছা অন্ধকার ছিল৷ ফলে চাঁদের মাটির ছবি স্পষ্ট নয়৷ আবছা ঘোলাটে৷

বিক্রম সফট ল্যান্ডিংয়ে ব্যর্থ হওয়ায় মিশন চাঁদের স্বপ্ন ব্যর্থ হয় ইসরোর৷ এখন ইসরোর সামনে লক্ষ্য গগনযান৷ হাল না ছেড়ে আবার নতুন স্বপ্নে বুঁদ ইসরো৷ সম্পূর্ণ ভেস্তে যায়নি চন্দ্রযান ২ মিশন৷ এখন গগনযানে সওয়ার হয়ে এবার ভারতীয় মহাকাশচারী পাড়ি দেবেন মহাকাশে৷ গগনযাত্রার জন্য ১২ জন পাইলটকে প্রথম পর্যায়ে বেছে নিয়েছে ইসরো৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here