ডেস্ক: প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল, ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে নাকি ২০ লক্ষ টাকা। কিন্তু কানাকড়িও জোটেনি রোহিত ভেমুলার মা’র। এই নিয়েই বুধবার বিরোধীদের উপর আক্রমণ চালান রেলমন্ত্রী ও কার্যবাহী অর্থমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল। রেলমন্ত্রী বলেন, রোহিত ভেমুলার মা আজ বিরোধীদের মুখোশ খুলে দিয়েছেন। তাই কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকেও ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি করেন তিনি। ভেমুলার মা জানিয়েছেন, মুসলিম লীগ ঘর তৈরির জন্য ২০ লক্ষ টাকা দেবে বললেও এখনও এক টাকাও দেওয়া হয়নি।

সেই কথা টেনে গোয়েল বলেন,বিজেপি সমাজকে বণ্টন করায় বিশ্বাসী নয়। সমাজের প্রতিটি মানুষই আমাদের জন্য সমান। সবাইকে নিয়ে কাজ করা উন্নয়ন করাই আমাদের লক্ষ্য। কিন্তু রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে বিরোধীদের এই মিথ্যা ভাষণ আর প্রতিশ্রুতি খুবই দুর্ভাগ্যপূর্ণ। প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষতিপূরণ না পাওয়ার ঘটনার নিন্দা করে তিনি বলেন, ‘একজন ব্যাকুল মহিলা এবং পীড়িত পরিবারের সঙ্গে এরম মিথ্যাচার করা রাজনৈতিক দল কখনও কোনও দেশের বা কোনও ব্যক্তির প্রিয় হতেই পারে না।

১৭ জানুয়ারি, ২০১৬ সালে হায়দারাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেলে নিজের ঘরে আত্মহত্যা করে রোহিত ভেমুলা। এই মৃত্যু ঘিরে হাজারো প্রশ্ন ওঠে, শুরু হয় শাসক-বিরোধী রাজনীতিও। কয়েকজন ছাত্র ও সংগঠন এমন অভিযোগও তোলেন যে, আত্মহত্যা করতে বাধ্য করতে বাধ্য করা হয়েছিল ভেমুলাকে। তখনই মুসলিম লীগ প্রতিশ্রুতি দেয় থাকার জন্য ২০ লক্ষ টাকা সহ ঘর দেওয়া হবে রোহিতের পরিবারকে। বলাই বাহুল্য, ২ বছরের বেশি সময় কেটে গেলেও সেসব না পেয়ে মুখ খুলেছেন ভেমুলার মা। আর এতে মেঘ না চাইছেই জলের মতো বিরোধীদের পর্যুদস্ত করার নতুন অস্ত্রও পেয়ে গিয়েছে বিজেপি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here