ডেস্ক: দশেরা উৎসবে পঞ্জাবের অমৃতসরে ঘটা ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় অবশেষে ক্লিনচিট দেওয়া হল নভজ্যোৎ কৌর সিধুকে। বুধবারই পঞ্জাব সরকারকে এই দুর্ঘটনার তদন্তকারীরা যে রিপোর্ট পেশ করেছে সেখানে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, এই দুর্ঘটনার সঙ্গে কোনও ভাবেই যুক্ত নন সিধুর পত্নী। ঘটনার সময় ওই স্থানে ছিলেনই তিনি।

১৯ অক্টোবর দশেরা উৎসবে ওই দুর্ঘটনাকে ঘিরে সিধু পত্নীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, তিনি ওই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। একজন প্রধান অতিথি হিসাবে ওনার দায়িত্ব ছিল যেখানে অনুষ্ঠান হচ্ছে তার নিরাপত্তা কেমন এবং কোন যায়গায় এই অনুষ্ঠান হচ্ছে তার পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা। কিন্তু নিজের দায়িত্ব এড়িয়ে গিয়েছেন উনি। একইসঙ্গে ঘটনার সময় ওই স্থানেই উপস্থিত ছিলেন কৌর সিধু। কিন্তু কাউকে কোনও রকম সাহায্য না করে চুপিসাড়ে দুর্ঘটনার পর এলাকা ছাড়েন তিনি। যদিও সেই অভিযোগ প্রথম থেকেই খারিজ করে আসছিলেন সিধু পত্নী। এদিন তাঁর সিল মোহর দিল রেল দুর্ঘটনার ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্ত। এদিন সেই তদন্তের বিস্তারিত রিপোর্ট পেশ করা হয় পঞ্জাবের প্রধানমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংকে।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সিধু পত্নী সাংবাদিকদের জানান, ‘যারা ওই সময় রেল লাইনের উপর দাঁড়িয়ে ছিল তাঁদের এটা বোঝা উচিৎ ছিল যে তারা রেলের লাইনে অনুপ্রবেশ করছে। একই সঙ্গে তিনি জানান, আমি যদি কোনও অনুষ্ঠানে উপস্থিত হই আর সেখানে যদি কোনও দুর্ঘটনা ঘটতে তার দায় কিভাবে আমার উপর পড়ে। আমি তো বহু অনুস্থানেই উপস্থিত থাকি।

উল্লেখ্য, ১৯ অক্টোবর দশেরা উৎসবের দিন পঞ্জাবের অমৃতসরে ঘটে এক ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা। ট্রেনের লাইনে দাঁড়িয়ে দশেরার অনুষ্ঠান দেখার সময় এক্সপ্রেস ট্রেন পিষে দিয়ে চলে যায় ৫৯ জনকে পাশাপাশি সেই ঘটনায় আহত হন অন্তত ১০০ জন। ঘটনার পুরো দায় অস্বীকার করে রেলের জমিতে অনুপ্রবেশের অভিযোগ তোলে রেল। পাশাপাশি পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করে রেল ও পঞ্জাব সরকার। অবশেষে সেই ঘটনায় সিধু পত্নীকে ক্লিনচিট দিল তদন্তকারী দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here