bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শোতে কিছুদিন আগেই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন নেহা ধূপিয়া। ‘রোডিজ রেভ্যুলেশন’-এর বাছাই পর্বে একটি ছেলেকে বেনজির আক্রমণ করেছিলেন নেহা। যার জন্য শুরু হয় তীব্র বিতর্ক। ওই অনুষ্ঠানে একটি ছেলে প্রতিযোগী বলেছিলেন, ‘সম্পর্কে থাকা সত্বেও আরও পাঁচজন পুরুষের সঙ্গে প্রেম করছিল আমার বান্ধবী, তাই আমি আমার তাঁকে চড় মেরেছিলাম।’

যার জন্য ওই প্রতিযোগীকে চাঁচাছোলা আক্রমণ করেন নেহা। যার জেরে সোশ্যাল মিডিয়াতে বিস্তর ট্রোল হতে হয়েছে অভিনেত্রীকে। সেই প্রসঙ্গে নেহা এদিন বলেছেন, ”রোডিজ-এর সঙ্গে আমি দীর্ঘদিন ধরেই যুক্ত। সারা ভারতে নানা ধরনের মানুষের সঙ্গে মেলামেশা করা যায় এই শোয়ের মাধ্যমে। কিন্তু আমার একটি বক্তব্যকে নিয়ে এটা কী শুরু হয়েছে? আমি ওই ছেলেটিকে বলেছিলাম কারণ গায়ে হাত তোলার ব্যাপারটা আমার পছন্দ হয়নি। তাই আমি ওই ছেলেটিকে বলেছিলাম, একজন মেয়ের ইচ্ছা একজন নয় পাঁচজন ছেলের সঙ্গে সম্পর্কে থাকবে। ব্যাপারটি আমি কোনওমতেই সমর্থন করি না। তবে এই কারণের জন্য কেউ তার বান্ধবীকে চড় মারবে সেটাও উচিত নয়। এটাই বলতে চেয়েছিলাম আমি।”

নেহা আরও জানান, ”দুঃখের বিষয়, আমার বক্তব্যের ভুল মানে করা হচ্ছে এখন। এতদিন চুপচাপ ছিলাম আমি, কিন্তু এই একটি কারণের জন্য আমার পরিবারের লোকজন, বাবার হোয়্যাটসঅ্যাপ আমার সহকর্মীদের ফোন করে গালাগালি দেওয়া হচ্ছে, ভুলভাল ছবি পাঠানো হচ্ছে সেটা ঠিক নয়।”

তিনি আরও জানান, ”ছেলে হোক কিংবা মেয়ে সম্পর্কে থাকাটা প্রত্যেকের নিজের ব্যাপার। যাই ঘটে যাক একটা সম্পর্কে তার জন্য গায়ে হাত দেওয়াটা উচিত নয়। একজন মেয়ের তুলনায় ছেলের গায়ের জোর আরও বেশি আর দেশে যেখানে মেয়েদের এত অত্যাচার সহ্য করতে হয়, সেটা বড় সমস্যার বলে আমি মনে করি। তাই আমার বলার উদ্দেশ্যে ছিল ছেলে হোক কিংবা মেয়ে কেউ কারোর গায়ে হাত দেবেন না।” ‘রোডিজ’-এর ঘটনার পর নেহাকে সোশ্যাল মিডিয়াতে ”ভুয়ো নারীবাদি” বলেও কটাক্ষ করেছেন অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here