মহানগর ওয়েবডেস্ক: জঙ্গি মদতের ঘটনায় পাকিস্তান যে সিদ্ধহস্ত সে কথা গোটা বিশ্ব কার্যত স্বীকার করে নিয়েছে। এই ইস্যুতেই এবার পাকিস্তানকে আক্রমণ করে ভারতের পাশে দাঁড়াল নেপাল। সম্প্রতি রাষ্ট্রপুঞ্জের মঞ্চে শুরুতেই পাকিস্তানে জঙ্গি কার্যকলাপ আটকানোর রণনীতির সমালোচনা করে ভারত। এর ঠিক পরই রাষ্ট্রপুঞ্জের মঞ্চে বক্তব্য রাখতে ওঠেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা অলি। এখানেই সন্ত্রাসবাদ রুকতে ভারতের প্রচেষ্টার প্রশংসা করার পাশাপাশি পাকিস্তানকে তুলোধোনা করেন তিনি।

রাষ্ট্রসঙ্ঘের মঞ্চে দেওয়া ভিডিও বার্তায় নেপালের তরফে জানানো হয় দেশের অখন্ডতা রক্ষা করার জন্য প্রতিবেশী দেশ এবং বিশ্বের অন্যান্য সমস্ত দেশের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্বন্ধ বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নেপাল। এরপরই ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দেন বলেন আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বিপুল সহমত (সিসিআইটি) নেওয়ার জন্য। উল্লেখ্য, ১৯৯৬ সালে সিআইটির প্রস্তাব ভারতই রেখেছিল আন্তর্জাতিক মঞ্চে। তবে এটি প্রয়োগের ক্ষেত্রে মতপার্থক্য দেখা যাওয়ায় বিষয়টি আর অগ্রসর হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন নেপাল পৃথিবীব্যপি বাড়তে থাকা সন্ত্রাসবাদের সর্বদা কড়া সমালোচনা করে। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়ার জন্য যত শীঘ্র সম্ভব সমস্ত দেশ গুলির একটি পূর্ণ সম্মতি তৈরি করা জরুরী। তিনি বলেন সন্ত্রাসবাদের সমর্থন বা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে যারা সমর্থন করে নেপাল সর্বদা সেই দেশের বিরোধিতা করেছে। এই সন্ত্রাসবাদের কারণেই প্রতি বছর শত শত নির্দোষ মানুষের মৃত্যু হয়। ঘৃণ্য, অমানবিক কর্মকাণ্ডের ঘোর বিরোধিতা করে নেপাল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here