news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সম্প্রতি বেন স্টোকসের করা একটি মন্তব্য বাইশ গজে রীতিমতো আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। বিশ্বকাপজয়ী ব্রিটিশ অলরাউন্ডার তাঁর বই ‘অন ফায়ার’-এ লিখেছেন যে, গত বিশ্বকাপে বার্মিংহ্যামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের জেতার তাগিদটাই তিনি দেখেননি। এরপরেই চলছে স্টোকসকে নিয়ে চলছে সমালোচনা।

এমন কী প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার সিকন্দর বখত টুইট করে বলেছেন, “বেন স্টোকস ওর বইতে লিখেছে যে, পাকিস্তানকে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে দেওয়ার জন্যই ভারত ইচ্ছাকৃত ভাবে ইংল্যান্ডের কাছে হারে।”

স্টোকস এরপর টুইট করে লেখেন, “আমি এরকমটা কখনও বলিনি। কথার মোচড়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হচ্ছে।”

গতবছর বিশ্বকাপে টুর্নামেন্টের ৩৮ নম্বর ম্যাচ ছিল বার্মিংহ্যামে ভারতের বিরুদ্ধে ডু-অর-ডাই ম্যাচ খেলতে নেমেছিল ইংল্যান্ড। বিরাট কোহলির দলের লক্ষ্য ছিল জয়ের ধারা অব্যাহত রাখা। অন্যদিকে ইয়ন মর্গ্যানরা এই ম্যাচ হারলে আর শেষ চারে উঠতে পারতেন না। ঘরের মাঠে কাপযুদ্ধ শেষ হয়ে যেত তাদের।

এই ম্যাচে টস জিতে ইংল্যান্ড ব্যাট করেছিল। ওপেন করতে নেমে জনি বেয়ারস্টো (১১১) ও জেসন রয়ের (৬৬) জুটি ২৩ ওভারের মধ্যে ১৬০ রান তুলে দিয়েছিল প্রথম উইকেটে। পাঁচে নেমে ব্রিটিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস ৫৪ বলে ৭৯ রানের ইনিংস খেলেন। ভারতীয় বোলারদের দুরমুশ করে ইংল্যান্ড নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেটে ৩৩৭ তোলে। জবাবে রোহিত শর্মার সেঞ্চুরি ও বিরাটের ফিফটি প্লাস ইনিংসেও ভারতের শেষরক্ষা হয়নি। ইংল্যান্ড ৩১ রানে ম্যাচ জিতে সেমি ফাইনালে ওঠে এবং পরবর্তীতে তারা বিশ্বজয় করে।

স্টোকস তাঁর বইতে এই ম্যাচের ময়নাতদন্ত করে এমএস ধোনি ও কেদার যাদবকে দুষেছিলেন। তিনি লেখেন, “ধোনি যখন ব্যাট করতে নেমেছিল তখন ভারতের ১১ ওভারে ১১২ রান প্ৰয়োজন ছিল। ও তখন ছয়ের থেকে বেশি সিঙ্গল নেওয়ায় জোর দিয়েছিল। ডজন বল বাকি ছিল। ভারত জিততেই পারত। ধোনি এবং ওর পার্টনার কেদার যাদবের থেকে জেতার সেরকম তাগিদই দেখিনি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here