kolkata news

রাজেশ সাহা, কলকাতা: বাংলার সংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং কৃষ্টি নষ্ট করার অভিযোগে এবার মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হল রাজ্যের একটি শিক্ষক সংগঠন। ইতিমধ্যেই মঙ্গলবার বেলেঘাটা থানাতেও রোদ্দুর রায়ের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ নামে একটি সংগঠন। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সহ বিভিন্ন মনীষীদের নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক অশ্লীল মন্তব্য এবং বাংলার সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার অভিযোগে পুলিশের দ্বারস্থ হয় সংগঠনটি। শুধু এখানেই থেমে না থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরেও ইমেইল মারফত অভিযোগ জানানো হয় সংগঠনের তরফে।

রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক কঠোর শাস্তি চেয়ে পথে নেমেছে পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ। সূত্রের খবর, আজ বুধবার রাজ্যজুড়ে তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখানো হবে। পাশাপাশি ২৩টি জেলাতেই রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানাবেন এই সংগঠনের জেলা নেতৃত্ব। সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিবর্তনের নামে অপসংস্কৃতি ছড়ানোর অভিযোগে রোদ্দুর রায় কে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম। সূত্রের খবর, এবিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে একটি ডেপুটেশন জমা দিতে চান রাজ্যের শিক্ষিকাদের একটি বড় অংশ। এই বিষয়ে বুধবার মুখ্যমন্ত্রী দপ্তরের কাছে অনুমতি চেয়ে পাঠানো হয়েছে শিক্ষক সংগঠনের তরফে।সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অনুমতি মিললেই বিভিন্ন জেলা থেকে শিক্ষিকারা মুখ্যমন্ত্রীর কালিঘাটের বাড়িতে আসতে চান রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে। পুলিশ সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই আজ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় পুলিশের কাছে নতুন করে অভিযোগ দায়ের হয়েছে রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার কলকাতার বেলেঘাটা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে রদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে। তার আগেই লালবাজার সাইবার থানায় অসংখ্য অভিযোগ জমা পড়েছে তার বিরুদ্ধে। এই বিষয়ে মঙ্গলবার রদ্দুর রায়ের সঙ্গে মহানগরের তরফে যোগাযোগ করা হলে, তিনি কোনো প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি। স্পষ্ট জানিয়ে দেন এই বিষয়ে তিনি মুখ খুলবেন না। সমন পেলে কি পুলিশের সামনে উপস্থিত হয়ে নিজের ব্যাখ্যা দেবেন? এই প্রশ্নতেও নীরব থেকে গিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় স্বঘোষিত বিপ্লবী রোদ্দুর রায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here