Parul

মহানগর ডেস্ক: কোভিড বিধি না মেনে চললে এবার জরিমানা বা জেল,জানাল হিমাচল প্রদেশ এবং উত্তরাখণ্ড কর্তৃপক্ষ। মাস্কবিহীন অবস্থায় পাহাড়ের বিভিন্ন অঞ্চলে পর্যটকদের ভিড় উপচে পড়ায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় সরকার। 

ads

   লকডাউনে নিয়ম কিছুটা শিথিল হতেই উপচে পড়া ভিড় জমেছে বিভিন্ন পাহাড়ি এলাকায়। আর নিয়ম শিথিল হতেই পর্যটকদের অনেকেই ভূলে যাচ্ছেন মাস্ক পরার কথা, ফলত আক্রান্ত হ‌ওয়ার আশঙ্কা ক্রমশ‌ই বাড়ছে অঞ্চল গুলিতে। এমতাবস্থায় সমাধান স্বরূপ জরিমানা এবং জেলকেই শাস্তি হিসেবে নির্ধারণ করল উত্তরাখণ্ড ও হিমাচল প্রদেশ কর্তৃপক্ষ। 

   যে সমস্ত পর্যটকেরা নিয়ম-বিধি লঙ্ঘন করবেন তাদের জন্য ৫০০০ টাকা জরিমানা এবং ৮ দিনের জন্য হাজতবাসের কথা বলেন, কুলু পুলিশ। মুসৌরি এবং নৈনিতাল কর্তৃপক্ষ কোভিড নেগেটিভ রিপোর্টকে অপরিহার্য করে দিয়েছেন সেই শহরে প্রবেশের ক্ষেত্রে। ১৫০ জনের বেশি পর্যটকদের কেম্পটি ঝর্নায় প্রবেশের ক্ষেত্রেও বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়। 

    হিমাচল প্রদেশে প্রায় ৭ লক্ষ পর্যটক ভিড় জমায় কোভিড গ্ৰাফ কিছুটা নিম্নমুখী হতেই।

উদ্বেগ প্রকাশ করেন জয় রাম ঠাকুর‌ও। তিনি বলেন, ‘যে হারে পর্যটকের সংখ্যা বেড়ে চলেছে তাতে আমরা বলেন, ‘আমরা সকল পর্যটকদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছি কিন্তু সেই সঙ্গে অনুরোধ তাঁরা যেন স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলেন। এক্ষেত্রে হোটেল গুলি কেউ সাবধান হতে হবে।’ এক‌ই প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রক আধিকারিক লাভ আগর‌ওয়াল বলেছেন, ‘কোভিড এখনও শেষ হয়ে যায়নি। একটা ছোট ভূল অনেক বড় ক্ষতি করতে পারে।’ নিয়ম না মানলে, এই ভ্রমণ- স্বাচ্ছন্দ্যের সুখ বাতিল করার কথাও তোলেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here