পণের বলি হল গৃহবধূ, আটক স্বামী ও শ্বশুর! চাঞ্চল্য হাওড়ার বৈষ্ণবপাড়ায়

0
102
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, হাওড়া: বিয়ের ছয় মাসের মধ্যে পণের বলি হল এক গৃহবধূ। মৃতার নাম অনন্যা কোলে।
বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ঘটনাটি ঘটে হাওড়া শহরের শিবপুর থানা এলাকার বৈষ্ণবপাড়া লেনে। এই ঘটনায় মৃতার বাপের বাড়ির তরফে খুনের অভিযোগ তোলা হয়েছে, শ্বশুরবাড়ির লোকেদের বিরুদ্ধে। তাদের দাবি প্রয়োজনমতো টাকা না দিতে পাড়ার জন্যই পরিকল্পনা মাফিক খুন করা হয়েছে তার মেয়েকে। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মৃতার স্বামী সঞ্জু রায়।

মৃতার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ৬ মাস আগে শিবপুরের বাসিন্দা সঞ্জুর সঙ্গে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করে সদ্য আঠারোর অনন্যা। অভিযোগ, বিয়ের এক মাস পর থেকেই শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার শুরু হয় অনন্যার উপর। কারণে অকারণে বাপের বাড়ি থেকে টাকা চেয়ে পাঠানো হতো। না দিলে চলতো অকথ্য অত্যাচার ও আরও বেশি মারধরের হুমকিও দেওয়া হতো। মাস তিনেক আগে ছেলের বাড়ির দাবি মিটিয়ে পঞ্চাশ হাজার টাকাও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তাতেও অত্যাচার থামেনি। দিন সাতেক আগে ফের অনন্যাকে মারধর করে টাকা চাওয়া হয়। কিন্তু এবার যে আর টাকা দেওয়া সম্ভব নয় সেটা অনন্যার বাপের বাড়ির পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এর পরেই বৃহস্পতিবার রাতে অনন্যার মৃত্যুর খবর আসে তার বাপের বাড়িতে।

kolkata bengali news

অনন্যার বাপের বাড়ির সদস্যদের বক্তব্য, অনন্যার শ্বশুরবাড়ির তরফে তাদের জানানো হয় যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যাবেলায় তাদের বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় অনন্যার দেহ পাওয়া গেছে। যদিও তাদের অনুমান, অনন্যা আত্মহত্যা করেনি তাকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। শিবপুর থানার পুলিশ মৃতার শ্বশুর ও স্বামীকে আটক করেছে। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে শিবপুর থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here