ডেস্ক: এমন ঘটনা যে ঘটতে পারে তা হয়ত কেউই ভাবতে পারেননি। শুক্রবারের ঘটনায় নিউজিল্যান্ড পুরো থমকে গিয়েছে। নিহতদের পরিবারের পাশে রয়েছে সরকার। তাদের সমস্তরকম সাহায্যের আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আর্দের্নে। এই ঘটনায় তিনি রীতিমতো চমকে উঠেছেন। শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে আততায়ীদের গুলিবর্ষণে মৃত্যু হয়েছে ৪৯ জনের। প্রাণ বাঁচানোর জন্য মানুষ এদিক ওদিক ছোটাছুটি করছিল কিন্তু আততায়ীদের খুনের খেলা বন্ধ হয়নি। নির্বিচারে তারা মানুষের ওপর গুলি চালিয়ে যাচ্ছিল।

শনিবার প্রধানমন্ত্রী ক্রাইস্ট চার্চ ক্যান্টারবেরি রিফিউজি সেন্টারে ভাষণ দিয়েছেন। ভাষণে তিনি বলেন, আমি আপনাদের পাশে রয়েছি। আপনারা যেভাবে নিউজিল্যান্ডকে দেখে এসেছেন তার এক আলাদা রূপ শুক্রবার দেখা গিয়েছে। আপনাদের কাছে এখন তা অপরিচিত কিন্তু বিশ্বাস করুন নিউজিল্যান্ড এমন নয়। আক্রান্ত মুসলিমদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান এবং মুসলিম সম্প্রদায়ের নেতা ও সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। জাসিন্দার পরনে ছিল কালো পোশাক। মাথায় ছিল দোপাট্টা। তিনি বলেন, ডিনস অ্যাভিনিউ মসজিদ থেকে এখনও মৃতদেহ সরানো হয়নি, কাজ চলছে। মুসলিমরা নিউজিল্যান্ডের জনসংখ্যার মাত্র এক শতাংশ। তারা ১০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে এখানে বসবাস করছেন।

 

মৃতদের পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি মসজিদে প্রচুর পরিমাণে মোতায়েন করা হবে পুলিশ। এই ঘটনায় অস্ট্রেলিয়ার এক নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনেছে পুলিশ। অভিযুক্তকে সকালেই আদালতে পেশ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here