জল থইথই পুরো এলাকা, প্রতিবাদে ছাতা মাথায় দিয়ে রাস্তা অবরোধ গ্রামবাসীদের

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, তমলুক: এক রাতের বৃষ্টিতেই গ্রামের বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। বাড়ির ভিতরে, দোকানে পাঁচ-ছয় ইঞ্চি পর্যন্ত জল জমে গিয়েছে। এরই প্রতিবাদে শনিবার সকালে বৃষ্টির মধ্যে ছাতা মাথায় দিয়েই রাস্তা অবরোধ করল পূর্ব মেদিনীপুরের নিমতৌড়ি গ্রামের বাসিন্দারা। তাদের অভিযোগ, স্থানীয় পঞ্চায়েতকে বারবার বলা সত্ত্বেও এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা ঠিক করা হয়নি। সে জন্যই এলাকার এই বেহাল দশা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, শুক্রবার বিকাল থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টির জেরে নিমতৌড়ির নবনির্মিত প্রশাসনিক ভবন এলাকা চক শ্রীকৃষ্ণপুর, কুলবেড়্যা ও নিমতৌড়ি গ্রামের বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। প্রায় প্রতিটি বাড়ির ভিতরে হাঁটু সমান জল। দোকানগুলির ভিতরেও জল থইথই করছে। এর প্রতিবাদে এদিন সকাল ১০টা থেকে স্থানীয় বাসিন্দারা ছাতা মাথায় দিয়ে নিমতৌড়ি-তমলুক সড়কের কুলবেড়্যা মোড় অবরোধ করে। একে বৃষ্টি হচ্ছে, তার উপর দিনের ব্যস্ত সময়ে রাস্তা অবরোধ হওয়ায় সমস্যায় পড়ে নিত্যযাত্রীরা। যানজটেরও সৃষ্টি হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে এই অবরোধ চলে। তারপর তমলুক থানার পুলিশের কাছ থেকে দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে অবরোধ তোলে গ্রামবাসীরা।

চক শ্রীকৃষ্ণপুর, কুলবেড়্যা ও নিমতৌড়ি গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগ, স্থানীয় পঞ্চায়েতের কাছে এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা ঠিক করার কথা বহুবার জানানো হয়েছিল। কিন্তু কোনও ব্যবস্থা নেয়নি পঞ্চায়েত। ফলে এক রাতেই বৃষ্টি জলমগ্ন হয়ে পড়েছে পুরো এলাকা। গ্রামবাসীদের এই সমস্যা দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দিয়েছে তমলুক থানার পুলিশ। পঞ্চায়েত প্রশাসন তাদের অভিযোগে কর্ণপাত না করলেও নিকাশি ব্যবস্থা ঠিক করার ব্যাপারে জেলা পরিষদের সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তমলুক থানার পুলিশ আধিকারিক। তাঁর এই আশ্বাসে গ্রামবাসীরা আপাতত অবরোধ তুললেও অবিলম্বে দাবি পূরণ না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছে। প্রয়োজনে জাতীয় সড়ক অবরোধ করা হবে বলেও তারা জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here