ডেস্ক: যত দিন যাচ্ছে নিপার আতঙ্ক ততই বেড়ে চলেছে দক্ষিণী রাজ্য কেরলে। গত দুই দিনে কেরলে নিপায় আক্রাত হয়ে আরও ২ জনের মৃত্যু হওয়ায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ১৬। ঘটনার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওই এলাকায়। কেরলে বন্ধ রাখা হয়েছে স্কুল কলেজ। এমনকি দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবায় যাত্রীদের খাদ্য তালিকায় ফলের ব্যবস্থা তুলে দিয়ে জুস দিচ্ছে দক্ষিণপূর্ব রেল।

কেরল স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেরলের কোজিকোডে মৃত্যু হয়েছে রাসিন নামের এক যুবকের। এছাড়াও ওই একই কারনে বৃহস্পতিবার কেরলে মৃত্যু হয়েছে এক আইনজীবীর। এহেন আপদকালীন পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সমস্ত দিক থেকে প্রস্তুতি নিয়েছে কেরল সরকার। স্কুলগুলিকে বন্ধ রাখার পাশাপাশি, হাসপাতালগুলিতে রাখা হচ্ছে পর্যাপ্ত চিকিৎসা ব্যবস্থা। নিপা আক্রান্ত হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন তাঁদের জন্য রাখা হয়েছে আলাদা চিকিৎসা ব্যবস্থা।

তবে শুধু কেরল নয়, নিপার আতঙ্ক ব্যাপক ভাবে হানা দিয়েছে কলকাতাতেও। আতঙ্কের জেরে লিচু ও কালোজাম বিক্রি প্রায় বন্ধ শহরের বাজারে। ভয়ে এই সমস্ত ফলের ধার ঘেঁষছেন না শহরবাসী। এদিকে কয়েকদিন আগেই কলকাতাতে মৃত্যু হয়েছে কেরল থেকে আসা শিনুপ্রসাদ নামে এক সেনা জওয়ানের। মনে করা হচ্ছে নিপা আক্রান্ত হয়েই মৃত্যু হয়েছে তাঁর। এছাড়া কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে দিনে দিনে বাড়