ডেস্ক: ফের বিপাকে ‘পি এম নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিক’। সূত্রের খবর কংগ্রেসের অভিযোগের ভিত্তিতে এই সিনেমার প্রযোজকদের নোটিশ পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন। মূলত নির্বাচনি আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে এই সিনেমার প্রযোজকদের বিরুদ্ধে চিঠি দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কিছুদিন আগেই এই সিনেমার প্রকাশ্যে বিজ্ঞাপনের জন্য একটি সংবাদপত্র ও টি-সিরিজকে শোকজ করে।

কারণ নির্বাচনি আচরণ বিধি ভঙ্গ করেছেন বলে জানা গিয়েছে। সেই ভিত্তিতে সিনেমার পরিচালক ও প্রযোজকদের একাধিক নোটিশ দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু তাঁরা এই নোটিশের ভিত্তিতে কোনও উত্তর দেয়নি বলে জানিয়েছিল কমিশন। পাশাপাশি ‘পি এম নরেন্দ্র মোদী’ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া কিংবা বৈদ্যুতিন মাধ্যমের যে প্রচার চলছে তাঁর জন্য প্রযোজকদের আলাদা নোটিশ দিয়েছে কমিশন। তাঁরা জানিয়েছেন, ”যদি এই সিনেমার মিডিয়াতে প্রচারের জন্য অগ্রিম কোনও রেজিস্ট্রেশন থাকে, তাহলে ছাড়পত্র দেওয়া যেতে পারে। যদি সেই সংক্রান্ত কোনও রেজিস্ট্রেশন থাকে তাহলে নির্বাচনি আচরণ বিধি ভঙ্গের অভিযোগে আইনি ব্যবস্থাও নেওয়া হতে পারে।”

 

 

পাশাপাশি নির্বাচনের সময় এই ধরনের রাজনৈতিক সিনেমার মুক্তি পাওয়া যায় কিনা সেই বিষয়েও খতিয়ে দেখবে কমিশন। আগামী মার্চ মাসের ৩০ তারিখ এর মধ্যে প্রযোজকদের জবাব তলব করেছে বলে জানা গিয়েছে কমিশন সূত্রে। বুধবার এই সিনেমার ট্রেলার মুক্তির পর থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত। এই সিনেমার পোষ্টারে গীতিকার হিসাবে নাম দেখা যায় জাভেদ আখতার, সমীর, প্রসূন যোশির মতো বিখ্যাত তারকাদের। কিন্তু তারপরেই কার্যত এই সিনেমাতে গান লেখার কথা অস্বীকার করে টুইট করেন জাভেদ আখতার। সেই একই পথে হাঁটতে দেখা যায় গীতিকার সমীরকেও।

 

তাঁরা স্পষ্ট জানিয়ে দেন এই সিনেমার জন্য কোনও তাঁরা লেখেননি। বিবেক ছাড়াও অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে বোমান ইরানি, দর্শন কুমার, জারিনা ওয়াহাব, মনোজ যোশী, প্রশান্ত নারায়ণ, বরখা বিস্ত সেনগুপ্ত, অক্ষত আর সালুজা, অঞ্জন শ্রীবাস্তব, রাজেন্দ্র গুপ্ত, যতীন কর‍্যেকর প্রভৃতি অভিনেতারা। সোশ্যাল মিডিয়াতে ইতিমধ্যেই মুক্তি পেয়েছে এই সিনেমার ট্রেলার। আগামী ৫ এপ্রিল মুক্তি পাবে ‘পি এম নরেন্দ্র মোদী’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here