ডেস্ক: এবার পরমাণু বোমা নিরস্ত্রীকরণ ইস্যুতে এবার পাকিস্তানকে একহাত নিলেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। সম্প্রতি, একটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে গিয়ে নাম না করে পাকিস্তান একহাত নেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ভারত কোনও কোনও প্রতিবেশী দেশের মতো জঘন্য বোমায় বিশ্বাসী নয়। পরমাণু প্রসার রোধের বিষয়টিকে গুরুত্ব দেখে ভারত।

এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ভারত এনটিপিতে সই হয়ত করেনি বটে, কিন্তু পরমাণু অস্ত্রের বিস্তার ঠেকাতে যাবতীয় নিয়মবিধি মেনে চলে। আর সেই দায়বদ্ধতা পালন করতে গিয়েই আমরা নানান পরমাণু চুক্তিতে সাক্ষর করেছি। বেআইনিভাবে এই অস্ত্রের বিস্তারে আমাদের কোনও সমর্থন নেই। আমাদের প্রতিবেশী দেশের কেউ কেউ এই ভয়ংকর বোমায় বিশ্বাসী হলেও আমরা নই। এরপরই পাকিস্তানকে সরাসরি একহাত নিয়ে বলেন, ‘সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানী জঙ্গিদের ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা এখনও কমেনি। ভারত এসব কখনই সহ্য করবে না। কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বন্ধ করতে কেন্দ্র ও কাশ্মীর সরকার একযোগে কাজ করছে। কেন্দ্রীয় দূত কাশ্মীরে গিয়ে সেখাকার নানান স্তরের মানুষের সঙ্গে কথা বলেছে। আলোচনার মাধ্যমে সে সমস্যারও সমাধান হবে। ভারত চায় না কোনও রকমভাবে উত্তেজনা বাড়ুক। কিন্তু পাকিস্তানকেও নিশ্চিত করতে হবে যাতে সন্ত্রাসবাদের জন্য পাক ভূখন্ড ব্যবহৃত না হয়।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে ভারত-পাকিস্তান সিমান্তবর্তী সমস্যার মাঝেই ফের নতুন করে ফাটল ধরেছে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে। ভারতে হেনস্থার অভিযোগ তুলে বৃহস্পতিবার দিল্লিতে নিযুক্ত পাক হাইকমিশনার সোহেল মাহমুদকে ফিরিয়ে নিয়ে গিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের অভিযোগ ছিল কিছুদিন আগে, একদল যুবক ধাওয়া করে পাকিস্তানি হাইকমিশনারের গাড়ি। রাস্তায় অকথ্য ভাষায় রাষ্ট্রদূতকে গালিগালাজও করে দুষ্কৃতীরা। শুধু তাই নয়, ভারতে নিযুক্ত কূটনীতিবীদদের সন্তানরা স্কুলে গেলে তাদেরকেও হেনস্থার সম্মুখীন হতে হয়। যদিও পাকিস্তানের সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে ভারত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here