pic-kolkata bengali news

ডেস্ক: ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে শাসক ও বিরোধী আক্রমণের ধার বেড়ে চলেছে ততই। রাফাল সহ নানা ইস্যুতে বিজেপি সরকার তথা মোদীকে যখন একের পর এক আক্রমণ শানিয়ে চলেছেন রাহুল গান্ধী, ঠিক তখনই রাহুলকে পাল্টা আক্রমণ শানালেন কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণ মন্ত্রী নীতীন গডকড়ি। কংগ্রেসকে তাঁর আক্রমণ পরিবারতন্ত্রের ধারক ও বাহক এই কংগ্রেরেস। তাঁর কথায়, ‘আগে গণতন্ত্র বলে কিছুই ছিল না, ওদের জামানায় তো প্রধানমন্ত্রী বা মুখ্যমন্ত্রী আগে থেকে ঠিক হয়ে থাকত। একটি মাত্র পরিবার থেকে দেশ ৩ জন প্রধানমন্ত্রী পেয়েছে।’

হায়দরাবাদে ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার এক অনুষ্ঠানে এদিন উপস্থিত হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গডকড়ি। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ভারত একটি শক্তিশালী দেশ হলেও জন সংখ্যার ভিত্তিতে এই দেশের অনেকেই গরিব। দেশ শাসনের পরম্পরা পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে সঞ্চালিত হয়েছে। আর ঠিক এই ভাবেই দেশে প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বভার বংশপরম্পরায় চলে এসেছে। যা গণতন্ত্রের মধ্যে পড়ে না। তবে এই চিরাচরিত প্রথার পরিবর্তন ঘটেছে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর।

এর পাশাপাশি, বিজেপির গুণগান গেয়ে তিনি বলেন, ‘বিজেপি কোনও পরিবার ভিত্তিক দল নয়। এরা রাজনীতি কোনও রকম ধর্ম, বর্ণ, জাত-পাতের ভিত্তিতে করে না। অটল বিহারী বাজপেয়ী আমাদের দলের একজন মহান নেতা হলেও, এই দলকে কেউ আডবানি বা বাজপেয়ীজির নামে চেনে না। এখন হয়ত মোদী-শাহের হাতে এই দলের দায়িত্ব রয়েছে পরবর্তী সময়ে অন্য কারও হাতে উঠবে দলের দায়িত্ব। এখানে পরিবারতন্ত্র চলে না তবে কংগ্রেসে ওই একটা পরিবার ছাড়া অন্য কিছুই নেই।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here