মহানগর ওয়েবডেস্ক: কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর থেকে কাশ্মীর শান্ত রয়েছে বলে বারবার দাবি করেছিল কেন্দ্র৷ সেইসঙ্গে দাবি ছিল, বিশেষ মর্যাদা তুলে নেওয়ার পর থেকে কোনও অশান্তির ঘটনায় কারোর মৃত্যু হয়নি৷ তবে কেন্দ্রের এই ধরণের দাবির নস্যাত করে তার কড়া সমালোচনা করলেন শ্রীনগরের মেয়র জুনেইদ আজিম মাট্টু৷ একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, রাস্তায় কোনও মৃতদেহ পড়ে নেই মানে এই নয় যে জম্মু কাশ্মীরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তাঁর বক্তব্য, গায়ের জোরে কাশ্মীরকে ঠান্ডা রাখা হয়েছে। তার মানে এই নয় যে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক৷

৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর থেকে কাশ্মীরকে কার্যত গোটা দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে৷ কেন্দ্রের এই উদ্যোগের নিন্দা করে মাট্টু বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার আশ্বাস দিয়েছিল, নিষেধাজ্ঞা ধীরে ধীরে শিথিল করে আনা হবে। কিন্তু কাশ্মীরে এখনও অনেক পরিবার আছে যারা প্রিয়জনদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি। পাশাপাশি বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের আটকে রাখারও সমালোচনা করেন তিনি৷ তাঁর কথায়, বছরের পর বছর কাশ্মীরের মূলস্রোতের রাজনীতিকরা সন্ত্রাসবাদের বিরোধিতা করেছেন। কিন্তু এখন তাঁদেরই বন্দি করে রাখা হয়েছে।

পাশাপাশি কাশ্মীরিদের বিশেষ অধিকার কেড়ে নেওয়ার প্রসঙ্গে মাট্টু বলেন, কাশ্মীরিদের অস্তিত্বের সংকট তৈরি হয়েছে। কাশ্মীরবাসী সবসময় সন্ত্রাসের মধ্যেই বাস করে। তবে তা আমাদের অভ্যাস হয়ে গিয়েছে। কিন্তু সন্ত্রাসের অজুহাতে আমাদের মৌলিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। গত সপ্তাহে এক সাক্ষাৎকারে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর বলেছিলেন, কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদীরা যাতে জড়ো হয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে হামলা না করতে পারে সেজন্যই যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রাখা দরকার ছিল৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here