central

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে শুক্রবার দেখা করলেন না রাজ্যের কোনও প্রতিনিধি। ‘কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে আর কোনও তথ্য রাজ্যের তরফে দেওয়া হবে না।’ এমনটা বৃহস্পতিবারই জানিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল রাজ্য সরকারকে যে তালিকা দিয়েছিল, সেই তালিকায় ছিল রাজ্যের বেশ কয়েকটি হটস্পট এলাকা। করোনা হাসপাতাল ও কয়েকটি বাজার৷ শুক্রবার সেই সমস্ত জায়গায় যাওয়ারই কথা ছিল কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের। কিন্তু এদিন সীমান্তরক্ষা বাহিনীর অতিথিশালাতেই বসে রইলেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। রাজ্যের তরফে তাদের সঙ্গে দেখা করতে আসলেন না কেউ।

শুক্রবার সকাল থেকেই বালিগঞ্জের গুরুসদয় রোডে, বিএসএফের অতিথিশালায় তৈরি হয়েই বসে ছিলেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। বাইরে মোতায়েন রয়েছে বিএসএফ পাইলট গাড়ি। কিন্তু অপেক্ষা করাই সার হল। বেলা একটা পর্যন্ত রাজ্যের কোনও প্রতিনিধি সেখানে যাননি। তবে ওই অতিথিশালার বাইরে এদিন সকাল থেকেই রয়েছে বালিগঞ্জ থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। কিছুটা দূরে কলকাতা পুলিশের একটি পাইলট কারও দাঁড়িয়ে ছিল। যদিও দেখা পাওয়া গেল না রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিদের।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে রাজ্যের করো না পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখার জন্য পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। কিন্তু সেই প্রতিনিধি দলকে আসল কী উদ্দেশ্যে রাজ্যে পাঠানো হয়েছে, তা জানতে চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এই টানাপোড়েনের মাঝে গতকাল বৃহস্পতিবার হাসপাতাল পরিদর্শনে বের হয়ে কেন্দ্রীয় দল। রাজারহাট কোয়ারেন্টাইন সেন্টার, এম আর বাঙ্গুর হাসপাতাল ঘুরে দেখেন প্রতিনিধি দল। তাদের সাথে ছিলেন রাজ্যের অতিরিক্ত স্বাস্থ্য শিক্ষা সচিব। এরপরেই রাজ্যের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, কলকাতায় করোনা পরিস্থিতি তাদের দেখানো হয়ে গিয়েছে, আর একটিও অতিরিক্ত তথ্য কেন্দ্রকে দেবেনা রাজ্য। সেই মতো আজ কেন্দ্রীয় দলের সঙ্গে দেখা করল না রাজ্যের কোন প্রতিনিধি। এদিনের ঘটনায় ফের একবার কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাতের আঁচ পাওয়া গেল বলেই মনে করছে বিভিন্ন মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here