Untitled 1 23
Untitled 1 23

ডেস্ক: নারী শরীর অপেক্ষা রহস্যময় জিনিস এ পৃথিবীতে খুব কমই হয়। কিন্তু এমন বহু ‘বিকৃতকাম’ মানুষ রয়েছেন যারা সেই রহস্য উন্মোচিত করা নিজেদের অধিকার বলে ভেবে বসেন। কিন্তু এখন থেকে একজন নারীর সম্মতি ছাড়া কোনও ভাবেই স্পর্শ করা যাবে না তাদের শরীর; সম্প্রতি একটি মামলার শুনানি করতে গিয়ে এমনই রায় দিল দিল্লির এক আদালত।

একজন নারীর শরীরের উপর অধিকার কেবল তাঁর নিজের। সম্মতি না থাকলে তাঁর শরীর, তাঁর দেহ ছোঁয়ার অনুমতি নেই কারোর। ২০১৪ সালে দিল্লির মুখার্জি নগরে একটি বাজারে ৯ বছরের এক নাবালিকার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে রাম নামের এক ব্যক্তি। এই ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত রামকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করেছে আদালত। এই মামলার রায় দেওয়ার সময় মহিলাদের শরীরের প্রতি লঙ্ঘিত অধিকারের প্রসঙ্গে দুঃখপ্রকাশ করে বিচারপতি বলেন, পরিস্থিতি দেখে তো মনে হচ্ছে পুরুষরা মহিলাদের গোপনীয়তার অধিকারকে স্বীকৃতিই দেয় না। নিজেদের বিকৃত যৌন লালসা মেটানোর আগে কোনও মেয়ের দিকে অগ্রসর হওয়ার আগে দু’বার ভাবেও না।

শুনানি শেষে দোষী সাব্যস্ত রামকে ‘যৌন বিকারগ্রস্ত’ বলে আখা দেন বিচারপতি। একই সঙ্গে তিনি বলেন, ভারতের মতো দ্রতগতিতে অগ্রসর হওয়া দেশের জন্য এটা খুবই দূর্ভাগ্যজনক যে প্রাপ্তবয়স্ক থেকে শুরু করে নাবালিকাদের, সকল বয়সের মেয়েদেরকেই যৌন বিকারগ্রস্ত পুরুষদের যৌন লালসার শিকার হতে হচ্ছে।

আদালত আরও জানায়, যে কোনও মেয়ে হোক। নাবালিকা বা সাবালিকা, নিজের শরীরের প্রতি একমাত্র অধিকার রয়েছে তাঁর নিজের। কোনও অবস্থাতেই মেয়েটির সম্মতি ছাড়া আর কেউ তাঁর শরীর স্পর্শ করতে পারবে না।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here