ডেস্ক: জোট নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরেই রাজ্যে টালবাহানা চলছে কংগ্রেস-সিপিএমের মধ্যে। তবে দীর্ঘ বৈঠকের পরও মেলেনি কোনও রফাসূত্র। বেশ কয়েকটি আসনে দুই দলই প্রার্থী দেবে এমন একটা সিদ্ধান্ত প্রাথমিক ভাবে নেওয়া হলেও, কংগ্রেসকে বাইরে রেখেই সম্প্রতি লোকসভার ৪২ আসনের মধ্যে ২৫ আসনে প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে দেয় সিপিআই(এম)। বামেদের সঙ্গে বারে বারে বৈঠকের পরও কোনও সিদ্ধান্ত তৈরি না হওয়ায় কংগ্রেসের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে বামেদের সঙ্গে জোট করবে না কংগ্রেস। ফলে লোকসভার ৪২ আসনে একাই প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে কংগ্রেস।

জানা গিয়েছে, রবিবার কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক হয় প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্বের। আর সেই বৈঠকের পরই রাজ্যে একলা লড়ার বিষয়ে ইঙ্গিত দেন কংগ্রেস হাইকম্যান্ড। রাহুলের থেকে একলা পথ চলার সবুজ সংকেত মেলার পর জানা যাচ্ছে, সোমবারই রাহুলের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য দিল্লি যাবেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। প্রথম ৩ দফার প্রার্থী তালিকা নিয়ে দিল্লিতে আলোচনা করবেন রাহুল ও সোমেন। তারপরই ঘোষণা করা হবে প্রার্থী তালিকা। এরপর বাকি ৪ দফার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে পরে।

উল্লেখ্য, রাজ্যে কংগ্রেস সিপিআই(এম) জোটের লক্ষ্যে বারে বারে বৈঠক করা সত্ত্বেও কোনও রফা সূত্র মেলেনি দু’পক্ষের। শুক্রবারও একদফা বৈঠক হয় দুই দলের। যদিও, কংগ্রেসের সঙ্গে সিপিআই(এম)-এর এই বৈঠকের পর কংগ্রেসের তরফে জানানো হয় তারা এই বৈঠকে অপমানিত বোধ করেছেন। পাশাপাশি, বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগও করা হয় বামেদের বিরুদ্ধে। এরপর এদিন রাহুলের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে দলের বৈঠকের পর, সাংবাদিকদের সোমেন মিত্র জানান, ‘জোট বিষয়ে রাজ্য নেতাদের যা মতামত তা আজকের মধ্যেই রাহুল গান্ধীকে জানিয়ে দেওয়া হবে। এরপর উনি যা সিদ্ধান্ত নেবেন তাই হবে। তবে জল যেদিকে গড়াচ্ছে তাতে স্পষ্ট লোকসভায় হয়ত জোট করবে না কংগ্রেস ও সিপিআই(এম)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here