kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : অমিত শাহের কথা শুনবেন না। আপনারা সংবিধানের কথা শুনুন। বৃহস্পতিবার হুগলির শ্রীরামপুরের জনসভা থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের এমনই পরামর্শ দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, বাংলাকে তিনি গুজরাট হতে দেবেন না।

প্রথম দফার নির্বাচন শেষ হওয়ার পরে পরেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে অতি সক্রিতার অভিযোগ তোলেন মমতা। এই অভিযোগ জোরালো হয় দ্বিতীয় দফার ভোটের দিন। অভিযোগ, ওই দিন নন্দীগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ভোটারদের ভয় দেখিয়েছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। বাহিনীর বিরুদ্ধে অতি সক্রিয়তার অভিযোগে সরব হন তৃণমূল নেত্রী। নন্দীগ্রামের বয়াল বুথে গিয়ে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকেন তৃণমূল নেত্রী।

এর পর থেকে যতই দিন গিয়েছে, ততই কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন মমতা। বাহিনীর একাংশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নির্দেশে চলছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এদিন শ্রীরামপুরের জনসভায় মমতা বলেন, অমিত শাহের কথা শুনবেন না। আপনারা সংবিধানের কথা শুনুন। বাহিনীর জওয়ানরা ভালো বলেও এদিন মন্তব্য করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। গত দশ বছরে তাঁর সরকার কী কী কাজ করেছে, এদিন তার ফিরিস্তি দেন মমতা। তৃণমূল ফের ক্ষমতায় এলে তাঁর সরকার কী কী কাজ করবে, এদিন তাও জানিয়ে দেন তিনি। সেই তালিকায় রয়েছে বিনামূল্যে রেশন প্রদান থেকে শুরু করে কৃষকদের ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দান সবই।

বিজেপির বিরুদ্ধেও এদিন সুর চড়িয়েছেন মমতা। নাম না করে আক্রমণ শানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকেও। মমতা বলেন, গুজরাটিদের হাতে বাংলা তুলে দেব না। বাংলাকেও গুজরাট হতে দেব না।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here