kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিধাননগর: পুলিশ ব্যাটেলিয়ানের একটি বিল্ডিংয়ে কোয়ারেন্টিন সেন্টার করে সেখানে করোনা আক্রান্ত পুলিশকর্মীদের রাখা হয়েছিল। কিন্তু আক্রান্ত পুলিশ কর্মীদের ঠিকভাবে চিকিৎসা করা হচ্ছিল না। এছাড়াও ছুটি দেওয়া হচ্ছিল না বলে অভিযোগ পুলিশকর্মীদের। আর সেই অভিযোগে সল্টলেকে এএফ ব্লকে কলকাতা পুলিশের চার নম্বর ব্যাটালিয়নের পুলিশ কর্মীরা বিক্ষোভ দেখান। বিল্ডিংয়ের ভেতরে ভাঙচুরও চালান পুলিশকর্মীরা। বিক্ষোভ থামাতে ঘটনাস্থলে আসে বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ ও কমিশনারেটের উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্তারা। বিক্ষোভরত পুলিশকর্মীরা তাদের ওপর ইটবৃষ্টি করেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, সল্টলেকের এএফ ব্লকে কলকাতা পুলিশের চার নম্বর ব্যাটেলিয়ানের একটি বিল্ডিংয়ে কোয়ারেন্টিন সেন্টার করে সেখানে করোনায় আক্রান্ত পুলিশকর্মীদের রাখা হয়েছিল। অভিযোগ, আক্রান্ত পুলিশকর্মীদের ঠিক ভাবে চিকিৎসা করা হচ্ছিল না। এছাড়াও ছুটি দেওয়া হচ্ছিল না বলে অভিযোগ  পুলিশকর্মীদের। সেই কারণে আজ সন্ধ্যার পর কলকাতা পুলিশের চার নম্বর ব্যাটেলিয়ানের বাকি পুলিশকর্মীরা বিল্ডিংয়ের ভেতর ভাঙচুর চালান। পরিস্থিতি সামাল দিতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ এবং কমিশনারেটের উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্তারা। অভিযোগ, বিধাননগর পুলিশকর্মীদের ওপর হামলা চালানো হয়। ইটও ছোড়া হয় তাদের ওপর। এই মুহূর্তে ঘটনাস্থলে মোতায়েন আছে বিধাননগর কমিশনারেটের বিশাল পুলিশবাহিনী।

কলকাতা পুলিশের চার নম্বর ব্যাটালিয়নের কর্মীদের ক্ষোভ ব্যাটেলিয়নের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমাড্যান্ট বিশ্বজিৎ মালাকার এবং ব্যাটেলিয়নের ইন্সপেক্টর ইনচার্জ সঞ্জয় সিংহ-এর বিরুদ্ধে। জানা গিয়েছে, পুলিশ ব্যাটেলিয়ান থেকে করোনায় আক্রান্ত পুলিশকর্মী মালদার বাসিন্দা মীর কাসেমকে অ্যাম্বুল্যান্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here