khattar kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিজেপি নেত্রী তথা কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রী স্মৃতি ইরানি এবার কী বলবেন? রাহুল গান্ধীকে পাকপন্থী বলে তিনি সহ তাঁর দল তুমুল সমালোচনা করছেন৷ অথচ নিজে মহিলা হয়েও একবারের জন্য তাঁরই দলের হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর এর বিরুদ্ধে টুঁ শব্টটি করেননি তিনি৷ এমনকী উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক বিক্রম সাইনিকে নিয়ে আশ্চর্যজনকভাবে নীরব থেকেছেন কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রী৷ কাশ্মীর ইস্যুতে রাহুল গান্ধীর মতোই এই দুজনের মন্তব্যকেও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে হাতিয়ার করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে রাষ্ট্রসংঘকে লেখা তাঁর সুদীর্ঘ নালিশপত্রে কংগ্রেস নেতা রাহুলের মতোই বিজেপির খট্টর ও সাইনি নিয়ে মন্তব্য ভিডিওসহ উল্লেখ করেছেন৷ এবার কী বলবে বিজেপি? এখন সেটাই দেখার৷

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভেরকড় রাহুল গান্ধী ও তাঁর দলকে দেশের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বলেছেন৷ অন্যদিকে কংগ্রেস এই নিয়ে ইমরানকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করেছে৷ তবে বিজেপি হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর ও উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক বিক্রম সাইনি নিয়ে কোনও মন্তব্য করেনি এখনও পর্যন্ত৷ উল্লেখ্য ৫ আগস্ট কেন্দ্রীয় সরকার জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা লোপের সিদ্ধান্ত নেয়৷ সংসদের দুই কক্ষে ভোটাভুটিতে কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি বিপুল ভোটে জেতে৷ রাষ্ট্রপতি এই বিষয়ে তাঁর সম্মতি জানান৷ তবে দেশের অন্যতম প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস আগাগোড়া এই বিষয়ে বিরোধিতা করছে৷ এজন্য কংগ্রেসর প্রাক্তন সভাপতি সহ তাঁর দলকে দেশদ্রোহী হিসাবে প্রবল সমালোচনা শুনতে হচ্ছে দেশের ভেতর৷‘ গোদের ওপর বিষফোঁড়া’র মতো এবার ইমরান কাশ্মীর নিয়ে রাহুল গান্ধীর নাম জড়ানোয় আরও বিপাকে পড়েছে কংগ্রেস৷ কী এমন বলেছেন রাহুলস খট্টর, সাইনি?

৩৭০ ধারা লোপের পরে ভাল নেই কাশ্মীর৷ এটাই রাহুল গান্ধীর বক্তব্য৷ অন্যদিকে খট্টর রসিকতার ছলে বলেছিলেন এবার ‘কাশ্মী কি কলি’ নিয়ে এসে তিনি হরিয়ানাতে লিঙ্গ ভারসাম্য রক্ষা করবেন৷ উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক বিক্রম সাইনি কাশ্মীরের সুন্দরী মহিলাদের নিয়ে তির্যক মন্তব্য করেছিলেন৷ এ’জন্য এই দুই বিজেপি নেতা প্রবলভাবে সমালোচিতও হয়েছিলেন৷ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী রাহুলের মন্তব্যকে প্রধান হাতিয়ার করে রাষ্ট্রসংঘের কাছে কাশ্মীর নিয়ে নালিশ করেছেন ৷ পাক প্রধানমন্ত্রীর সাফ বক্তব্য, ভারতের অন্যতম বিরোধী দলনেতা রাহুল গান্ধী নিজেই বলেছেন ৩৭০ ধারা লোপের সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরে মানবতা লঙ্ঘন করছে মোদী সরকার৷ অন্যদিকে তিনি খট্টরের রসিকতাকে তুলে ধরে প্রমাণ করতে চাইছেন কাশ্মীরের মহিলাদের সম্ভ্রম বিপন্ন৷ রাহুল গান্ধী নিজে পরিস্থিত সামাল দিতে সাফ জানিয়েছেন ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ জম্মু-কাশ্মীর, তাই সেখানে পাকিস্তান কেন কোনও বিদেশির নাক গলানো উচিত নয়৷ কংগ্রেসও জানিয়েছে তাদের বদনাম করতে ইচ্ছা করে ইমরান কংগ্রেস নেতা রাহুলের নাম কাশ্মীর ইস্যুতে উল্লেখ করেছেন৷ এই শতাব্দী প্রাচীন দল পাক প্রধানমন্ত্রী এমন আচরণের তীব্র প্রতিবাদ করেছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here