ডেস্ক: দেশের সাধারণ মানুষের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলে দিনের পর দিন পেট্রোল-ডিজেলের দাম তরতরিয়ে বেড়েই চলেছে। দাম কমার কোনও লক্ষণই নেই। এরই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ডলারের তুলনায় টাকার দাম। অন্যদিকে এই পেট্রোল-ডিজেলের আকাশছোঁয়া দামের কারণে বিরোধীদের তোপের মুখে পড়তে হচ্ছে কেন্দ্রের মোদী সরকারকে। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে এই পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির ব্যপারে যদি কোনও পদক্ষেপ না নেয়, তাহলে কেন্দ্রের পক্ষে তা মোটেই ভাল হবে না সেটা হাড়েহাড়ে টের পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেজন্য এবার নিজেই ময়দানে নেমে পড়লেন প্রধানমন্ত্রী। এই মূল্যবৃদ্ধিতে কিভাবে রাশ টানা যায় তার জন্য একটি পর্যালোচনার বৈঠকে বসেছেন তিনি। শুক্রবার থেকেই এই বৈঠক শুরু হয়ে গিয়েছে। শনিবারও এই বৈঠক চলবে বলে জানা গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, এদিনের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে থাকবেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল, নীতি আয়োগের সহ-সভাপতি রাজীব কুমার, বিবেক দেব রয়স, আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেল এবং অর্থসচিব হাসমুখ আঁধিয়া। এই বৈঠকে ঠিক করা হবে যে আকাশছোঁয়া পেট্রোপণ্যের দামে কিভাবে রাশ টানা যাবে। পেট্রোপণ্য ছাড়াও কেন্দ্রের নানা সামাজিক প্রকল্প নিয়েও এখানে কথা বলতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন দিল্লিতে পেট্রোলের দাম লিটার প্রতি ৮১.২৮ টাকা এবং ডিজেল প্রতি লিটার ৭৩.৩০ টাকায় বিকোচ্ছে। সেখানে মহানগরী মুম্বইতে পেট্রলের দাম ৮৮.৬৭ টাকা এবং ডিজেলের দাম ৭৭.৮২ টাকা। অন্যদিকে কলকাতায় পেট্রোল বিকোচ্ছে ৮৩.১৪ টাকা এবং ডিজেল ৭৫.৩৬ টাকায়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here