kolkata news
Parul

মহানগর ডেস্ক: করোনা মহামারীর সাথে যখন ভ্যাক্সিন নিয়ে লড়াইয়ে নেমেছে সারা বিশ্ব ঠিক তখনই একের পর এক নতুন ভেরিয়েন্টের উদয় চিন্তা বাড়াচ্ছে বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকদের। আলফা,বিটা ও ডেল্টার পাশাপাশি বিশ্বের একদম অন্যপ্রান্তে বর্তমানে তান্ডব চালাচ্ছে করোনার লাম্বডা ভেরিয়েন্ট। ইতিমধ্যেই পেরু, চিলি ও উরুগুয়ে সহ প্রায় ৩০ টি দক্ষিণ আমেরিকান দেশের সংক্রমনে প্রকট রূপে দেখা দিয়েছে Sars-Covid-19 এর এই লাতিন সহোদর।

ads

দেখা গেছে পেরুতে নব্য সংক্রমনের প্রায় ৮০ শতাংশের জন্যই এই লাম্বডা ভেরিয়েন্টই দায়ী। বিজ্ঞানীরা মনে করছেন লাম্বডার সর্ববৃহৎ চারণ ক্ষেত্র পেরুতেই এই ভেরিয়েন্টের উৎপত্তি। ইতিমধ্যেই পেরুতে প্রতি লক্ষে মৃত্যুর সংখ্যা ৫৮৭ তে এসে ঠেকেছে। তার জন্য অনেকাংশেই এই লাম্বডা ভেরিয়েন্ট দায়ী বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এ সবচেয়ে  বিধ্বংশী প্রমাণিত হয়েছিল ডেল্টা ভেরিয়েন্ট।আর নতূন এই লাম্বডা ভেরিয়েন্ট করোনার বাকি সমস্ত ভেরিয়েন্টের তুলনায় আরো বেশি দ্রুত ও সংক্রামক বলে মনে করছেন ভাইরোলজিস্টরা। ভারতে এখনো এই ভেরিয়েন্টের দেখা না মিললেও প্রশাসনের সর্বস্তরের সকলকে সতর্ক থাকতে পরামর্শ দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

তৃতীয় ঢেউ যেখানে অবশ্যম্ভাবী সেখানে এই ভেরিয়েন্ট বিপজ্জনক ভূমিকা নিতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকে। পেরুতে ইতিমধ্যেই ১২ বছরের ঊর্ধ্বে কিছু বিকলাঙ্গ শিশুকে টিকা দেওয়া শুরু করেছে সে দেশের প্রশাসন। এই ভেরিয়েন্ট যাতে ভারতের পাশাপাশি পৃথিবীর অন্যান্য প্রান্তে আর না ছড়াতে পারে সেই নিয়ে এখন সচেষ্ট সকলেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here