মহানগর ওয়েবডেস্ক: আগামীকাল, অর্থাৎ ৩১ অগস্ট অসমে প্রকাশ পেতে চলেছ জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি)-র চূড়ান্ত তালিকা। এই তালিকার দ্বারাই কার্যত নিশ্চিত করে ফেলা হবে কারা প্রকৃত ভারতীয়, এবং কারা অনুপ্রবেশকারী। আর এনআরসির শেষ তালিকা প্রকাশের আগে থেকে চূড়ান্ত সতর্কবার্তা জারি হয়েছে অসমে। কোনও রকমের গুজবে কান না দেওয়ার জন্য মাইকিং করে আবেদন জানানো হচ্ছে। পাশাপাশি এনআরসি নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার আর্জি জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

গোটা অসম জুড়েই জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। নিষিদ্ধ করা হয়েছে সবরকম বড় জমায়েতও। ফলে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজমান উত্তর-পূর্বের এই রাজ্যে। মনে করিয়ে দেই, গতবার যখন এনআরসির খসড়া প্রকাশ হয়েছিল তাতে প্রায় ৪০ লক্ষ মানুষের নাম গায়েব ছিল। এরপর থেকেই নাগরিকপঞ্জি সংশোধন নিয়ে হিংসাত্মক ছবি দেখা গিয়েছে অসম জুড়ে। অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্ট অসম সরকারকে বারবার এনআরসি নিয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে এসেছে। ফলে এমতবস্থায় তড়িঘড়ি চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ না করে গড়িমসি করার কোনও জায়গা ছিল না অসম সরকারের কাছে।

অন্যদিকে সরকারের তরফে নানা ভাবে আগাম সতর্কতা নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। যেমন গতকাল থেকেই বিভিন্ন মাধ্যমে সরকার প্রচার চালাচ্ছে যে কারোর নাম যদি তালিকায় না থাকে তবে সেই বিদেশি এমন কোনও মানে নেই। অসমের প্রায় ৪০ লক্ষের বেশি মানুষ (যাদের নাম খসড়ায় ছিল না) বিশেষ করে দুশ্চিন্তায় ভুগছেন। তালিকা থেকে নাম বাদ পড়লে তাদের ঘাড় ধাক্কা দেওয়া হবে, নাকি বলপূর্বক সীমান্তের ওপারে পাঠিয়ে দেওয়া হবে, এই নিয়ে ধন্দে তারা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here