kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: তিনি নিজে জঙ্গিদের ‘হিটলিস্ট’-এ রয়েছেন। কিন্তু জম্মু কাশ্মীরের জনগণের নিরাপত্তার সঙ্গে আপস করতে নারাজ জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। উপত্যকার ৩৭০ ধারা বিলোপের পর ফের একবার উপত্যকার পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে যাচ্ছেন তিনি। গত ৫ অগস্ট কেন্দ্রীয় সরকারের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের পর এই নিয়ে দ্বিতীয়বার জম্মু কাশ্মীরের উদ্দেশে যাত্রা করছেন তিনি। মনে করিয়ে দেই, সংবিধানের ৩৭০ নম্বর ধারা বাতিলের জেরে রাজ্যের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ হওয়ার পরে গত অগস্ট মাসে তিনি উপত্যকা সফরে এসেছিলেন ডোভাল।

সূত্রের খবর, মূলত নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতেই এই সফর করছেন তিনি। বিগত কয়েক দিন যাবত নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে জঙ্গি সক্রিয়তা বৃদ্ধি পেয়েছে। গোয়েন্দা রিপোর্টে এমনটাই জানানো হয়েছে। বালাকোটে জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির পুনরায় চালু হওয়া এবং সীমান্ত বরাবর ৫০০ জঙ্গির অবস্থানের খবরও মিলেছে। এই অবস্থায় ডোভালের কাশ্মীর সফর যে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ তা আলাদা করে বলার প্রয়োজন পড়ে না। এবারের সফরে জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তিনি পৃথক বৈঠকে বসবেন বলে জানা গিয়েছে। তবে এবারের সফরে কত দিন উপত্যকায় থাকবেন ডোভাল, সে সম্পর্কে বিশদে জানা যায়নি।

বর্তমানে উপত্যকার যে পরিস্থিতির রিপোর্ট রাজ্যপাল কেন্দ্রকে দিয়েছেন, তা নিয়ে কেন্দ্রের বহু নেতৃত্বের মনেই সংশয় রয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। বিশেষত, হাজারো আশ্বাসের পরও কাশ্মীরের জনজীবন স্বাভাবিক ছন্দে ফিরে আসেনি। সে জন্য কেন্দ্রের ‘ভুল’ নীতিকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন সমালোচকরা। এই অবস্থায় ফের একবার কীভাবে নিরাপত্তার মাঝেও স্বাভাবিক অবস্থা উপহার দেওয়া যায় এবং জনজীবনের ধারা ফিরিয়ে আনা যায় সেটাও অন্যতম লক্ষ্য হবে ডোভালের। কেননা গতবারও কাশ্মীর সফরে থাকাকালীন সেখাকার বাসিন্দাদের সঙ্গে আলাপচারিতা করে মিশতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। ফলে ডোভালের এই কাশ্মীর সফরের ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here