kolkata news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ব্যবসায়ী নিখিল জৈনকে বিয়ে করার পড়েই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন সাংসদ-অভিনেত্রী নুসরত জাহান। মাথায় সিঁদুর ও হাতে চুড়ি পড়ে হিন্দু ধর্ম পালন করার জন্য নানা মৌলবি সংগঠনের তরফ থেকে হুঙ্কার আসতে শুরু করে নুসরতের দিকে। সেই বিতর্ক কাটতেই ফের একটি নতুন বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন অভিনেত্রী-সাংসদ নুসরত জাহান। অষ্টমীতে স্বামী নিখিল জৈন-এর সঙ্গে সুরুচি সংঘের পুজোতে পুষ্পাঞ্জলি দেন নুসরত জাহান। তারপরেই তাঁর দিকে ধেয়ে আসে নানা বিতর্ক।

গত সোমবার ইত্তেয়াস ওলেমায়ে হিন্দ -এর সহ সভাপতি মুফতি আসাদ কাসমি অভিনেত্রী নুসরতকে নানান কটূক্তি করেন। যার জবাব নাম না করেই গতকাল চালতাবাগানে সিঁদুর খেলতে এসে দিয়ে দেন অভিনেত্রী। তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে এসে জানান, “আমি ঈশ্বরের বিশেষ সন্তান। আমি সব উৎসব পালন করি। আমি সকলের ঊর্ধ্বে মানবতা ও ভালোবাসাকে শ্রদ্ধা করি।”

তাঁর সমর্থনে এগিয়ে আসেন তাঁর স্বামী নিখিল জৈন। তিনিও জানান, ”আমি মনে করি ভারতের প্রতিটি নাগরিকের, তাদের ধর্মীয় পরিচয় নির্বিশেষে সমস্ত ধর্মকেই গ্রহণ করা উচিত।” গতকাল শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের পুজোতেই কার্নিভালে নুসরতকে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। এর আগে অষ্টমীর দিন সুরুচি সংঘে ঢাক বাজাতে দেখা গিয়েছিল নুসরত ও তাঁর স্বামী নিখিলকে। গত সোমবার নুসরতের বিরুদ্ধে তোপ দেগে মুফতি আসাদ কাসমি জানান, ”এটি কোনও নতুন বিষয় নয়। যদিও ইসলাম তার অনুরাগীদের কেবলমাত্র আল্লাহ-র কাছে প্রার্থনা করার আদেশ দেয়, তা সত্ত্বেও তিনি হিন্দু দেবদেবীদের কাছে পুজো দিচ্ছেন। তিনি যা করেছেন তা ‘হারাম’ (পাপ)। তিনি ধর্মের বাইরে বিবাহও করেছেন। তাঁর নাম ও ধর্ম পরিবর্তন করা উচিত। ইসলামে এমন লোকের দরকার নেই যারা মুসলিম নাম ধরে রাখেন এবং ইসলাম ও মুসলমানদের কলুষিত করেন।” কার্যত ওই ইমামের বিরুদ্ধে মুখ না খুলেও ধর্মনিরপেক্ষতার বার্তা আরও একবার দিলেন অভিনেত্রী-সাংসদ নুসরত জাহান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here