‘ন্য়ায় প্রকল্প ভারতের ভঙ্গুর অর্থনীতিতে জরুরী ছিল’! মন্তব্য় নোবেলজয়ী অভিজিতের

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ন্যায় প্রকল্প৷ এই প্রকল্পকেই হাতিয়ার করেই ২০১৯ এর ভোট বৈতরণী পার করতে চেয়েছিল শতাব্দী প্রাচীন দল কংগ্রেস৷ যেখানে দেশের গরিব পরিবারগুলিকে বছরে নূন্যতম ৭২ হাজার টাকা করে আয় নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী৷ সেই ন্যায় প্রকল্পই ছিল নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিস্কপ্রসূত৷ ভারতের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থায় সেই ন্যায় প্রকল্পই জরুরি ছিল বলে মনে করেন নোবেল জয়ী এই অর্থনীতিবিদ৷

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, দেশের মানুষের জন্য নুন্যতম আয়ের ব্যবস্থা করা উচিত, তা ন্যায় প্রকল্পই হোক বা অন্য কিছু৷ সেটা না করা হলে খুব শীঘ্রই একটা শ্রেণীর মানুষ ভয়াবহ ঝক্কির সম্মুখীন হবে৷ তিনি আরও বলেন, দেশে কর্মসংস্থান কমছে যার ফলে অর্থনীতি ভয়াবহতার সম্মুখীন হতে চলেছে ভারত৷ এর জন্য আগে থেকে সতর্কতা নেওয়া উচিত ছিল৷ প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনের আগে ন্যায় প্রকল্পের কথা ঘোষণা করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী৷ তিনি বলেছিলেন, দারিদ্রতার বিরুদ্ধে এ সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হতে চলেছে৷ তবে সাধারণ মানুষ তাতে ভরসা করতে না পারলেও তাবড় তাবড় অর্থনীতিবিদরা জানিয়েছিলেন আমূল পরিবর্তন আসতে পারে এই প্রকল্পের হাত ধরে৷

নোবেল পুরস্কার জয়ে অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন জানান কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী। ট্যুইটারে তিনি লেখেন, ‘অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার জেতার জন্য অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন। ‘ন্যায়’কে বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সহায়তা করেছিলেন। দারিদ্রতা নির্মূল এবং দেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করার মতো ক্ষমতা ন্যায়-এর মধ্যে ছিল। এরপরেই তিনি বর্তমান সরকারকে কটাক্ষ করে লেখেন, দেশে এখন মোদিনমিক্স আছে, যা অর্থনীতিকে ধ্বংস করছে এবং দারিদ্র বৃদ্ধি পাচ্ছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here