গান্ধীর মৃত্যু দুর্ঘটনায়! চাপে পড়ে বিতর্কিত বুকলেট তুলে নিল ওড়িশা সরকার

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ১৯৪৮ সালের ৩০ জানুয়ারি দিল্লির বিড়লা হাউসে আকস্মিক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল মহাত্মা গান্ধীজির। ওড়িশার এক সরকারী স্কুলের বুকলেটে প্রকাশ করা হয়েছিল এমনই তথ্য। স্বভাবতই এই ঘটনার কথা ছড়িয়ে পড়তেই উত্তাল হয়ে ওঠে দেশের রাজনীতি। বিতর্ক চরম পর্যায়ে পৌঁছনোর আগেই সেই বিতর্কিত বুকলেট তুলে নিল ওড়িশা সরকার।

তাদের তরফে জানানো হয়েছে, পড়ুয়াদের কাছে এমন ভুল এবং ভ্রান্ত তথ্য দেওয়া সরকারের লক্ষ্য একেবারেই নয়। এটি কোনও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ব্যাপার নয়। কেউ এটা ইচ্ছা করে করেনি বা করতেও চায়নি। ভুল সংশোধন করতে রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই বুকলেট তুলে নিয়েছে। একইসঙ্গে দুই কর্মকর্তাকে শোকজ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে ওড়িশা সরকার। পাশাপাশি, স্কুল শিক্ষা দফতর থেকে জানানো হয়েছে, বুকলেটটি সংশোধন করে পুণরায় ছাপানো হবে এবং তা যত দ্রুত সম্ভব করে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে পাঠানো হবে।

জাতীর জনক মহাত্মা গান্ধীর ১৫০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ওড়িশার ওই সরকারী স্কুলে প্রকাশ করা হয়েছিল গান্ধীজি সম্বন্ধিত ২ পাতার একটি বুকলেট। যার নাম ‘আমা বাপুজি: একা ঝলকা’। যেখানে গান্ধীজির বাণী থেকে শুরু করে তার জীবনের নানান কর্মকাণ্ড উল্লেখ করা হয়েছিল ওই বইতে। তবে বইটির একেবারে শেষে গান্ধীজির মৃত্যু সংক্রান্ত কারণ নিয়েই বেধেছিল বিতর্ক। উল্লেখ করা হয়েছিল, আকস্মিক কিছু ঘটনার জেরে দুর্ঘটনাজনিত কারণে মহাত্মা গান্ধীর মৃত্যু হয় দিল্লিতে। স্কুল পড়ুয়াদের কাছে গান্ধীজি নিয়ে এমন ভুল তথ্য পরিবেশনের অভিযোগে সরব হয়ে উঠেছে কংগ্রেস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here