Olympic news

 

Highlights

  • অলিম্পিকে করোনা আতঙ্ক
  • ঐতিহ্যশালী মশাল প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে কোনও সাধারণ দর্শক আসতে পারবেন না
  • বৃহস্পতিবার অলিম্পিয়ায় হবে ওই অনুষ্ঠান

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: চিনে করোনা ভাইরাসের প্রভাব যখন থেকে পড়তে শুরু করে তখনই অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। এবারের অলিম্পিক টোকিয়োতে হওয়ার কথা। কিন্তু চিনে প্রায় মহামারীর আকার নেওয়া করোনা আতঙ্কে অলিম্পিক শুরু হওয়া নিয়ে দ্বিধা দেখা গিয়েছিল। যদিও আয়োজক কমিটি জানিয়ে দিয়েছে নির্দিষ্ট সময়েই শুরু হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। চিনে করোনা অলিম্পিকের ওপর ‘থাবা’ না বসাতে পারলেও, এই প্রতিযোগিতার আঁতুড়ঘর গ্রিসে মারণ ভাইরাসের প্রভাব পড়ল।

গ্রিসের পশ্চিম সীমান্তবর্তী অঞ্চলে বেশ কিছু মানুষ এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর তারপরেই গ্রিক অলিম্পিক কমিটি নজিরবিহীনভাবে জানিয়ে দিয়েছে এবারের ঐতিহ্যশালী মশাল প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে কোনও সাধারণ দর্শক আসতে পারবেন না। একেবারে দর্শকশূন্য অবস্থাতেই এই অনুষ্ঠান হবে। যদিও কমিটি এও জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার অলিম্পিয়ায় হতে চলা ওই অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ও চিনের আয়োজক কমিটির মোট ৭০০ জন অতিথি উপস্থিত থাকবেন। বুধবার তার জন্য রুদ্ধদ্বার অবস্থায় মহড়াও করা হবে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে গ্রিসের পশ্চিমাংশের বেশ কিছুজনের শরীরে করোনা ভাইরাস মেলার পর থেকেই ওই অঞ্চলে বড় জমায়েতের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে গ্রিসের স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ফলে চিন্তায় পড়েছেন অলিম্পিয়ার পর্যটন ব্যবসায়ীরা। এই মশাল প্রজ্বলন অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে প্রচুর পর্যটক এই সময় ওই শহরে আসেন। এবার তার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় সমস্যায় ব্যবসায়ীরা।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৪ সালে একবার এই মশাল প্রজ্বলন অনুষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছিল। সেবার লস অ্যাঞ্জেলসে অলিম্পিকের আসর বসেছিল। কিন্তু আমেরিকায় ওই অলিম্পিকের বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে অলিম্পিয়ায় গ্রিক সরকার ঐতিহ্যশালী মশাল প্রজ্বলন অনুষ্ঠান বন্ধ রেখেছিল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here