মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘পিঙ্ক’, ‘মুল্ক’, ‘মানমারজিয়া’, কিংবা ‘বাদলা’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তাপসী পান্নু। কিন্তু এত সহজ ছিল না তাঁর বলিউড যাত্রা। এই প্রসঙ্গে তাপসী জানিয়েছেন, ”কিছু সিনেমা ভালো নাই চলতে পারে। এটা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই, গর্ব করা উচিত। আমারও কেরিয়ারে বেশ কিছু ফ্লপ সিনেমা আছে কিন্তু তাঁর জন্য আমি ভয় পাইনি। এগুলি আমাকে শক্তিশালি করে তুলেছে।” তাঁর সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘মিশন মঙ্গল’ বলিউডে ব্যাপকহারে ব্যবসা করছে।

এই বিষয়ে তাপসী জানান, ”যখন আপনি কোনও সিনেমা ব্যাকগ্রাউন্ড বা পরিবারের কেউ সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির না থাকে, মানুষ চাইবে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আপনার পরিচয় নষ্ট করার। প্রত্যেকে চাইবে আপনার ক্ষতি করতে। তারপরে ইন্ডাস্ট্রিতে ঢুকে পড়লে, তখন মনে হবে এটা একটা আলাদা জগৎ। খুবই ভয়ের ব্যাপার, একটা মেয়ে যে দিল্লিতে থাকে বলিউডে কাজ করে কোনও গডফাদার ছাড়া।” তিনি আরও জানান, ”ভাগ্যিস আমার সঙ্গে কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি, কোনও বিষয়ে কারোর সঙ্গে সমঝোতা করতে হয় নি। প্রত্যেক বিষয়ের একটা ভালো দিক ও খারাপ দিক থাকে। তবে আমি দেখি বলিউডে মানুষ খারাপটাকেই বেশি বড় করে দেখায়, তবে ইন্ডাস্ট্রিতে কিছু মানুষ আছে যারা সৎ, তারাই আমার সঙ্গে আছেন, আমাকে সাপোর্ট করেন।” বলিউডে কাজ পাওয়া নিয়েও নানা সমস্যাতে পড়তে হয়েছে তাপসীকে।

তিনি জানান, ”একজন প্রযোজক আমাকে তাঁর সিনেমাতে অভিনয় করাতে চাইছিলেন না, তাঁরা ভেবেছিলেন আমার জন্য পাঁচটা দৃশ্য ও দুটো গান রাখলে বিশাল বড় ক্ষতি হয়ে যাবে আমার। আমার নাকি ভাগ্যটাই খারাপ এর জন্যই সিনেমাটি ফ্লপ হবে। সেদিন আমার খুবই খারাপ লেগেছিল, আমি নিজেকে প্রশ্ন করেছিলাম, তাহলে কী যোগ্য নই? কিন্তু ভগবানের আশীর্বাদে আমি বেঁচে গিয়েছি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here