kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, মুর্শিদাবাদ: নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে রাজ্যে কুটির শিল্পের মতো গজিয়ে ওঠা অস্ত্র কারখানার হদিশ পাচ্ছে পুলিশ৷ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অস্ত্র সহ পুলিশের জালে উঠে আসছে একের পর এক বেআইনি অস্ত্র পাচারকারি৷ নির্বাচনে বিক্ষিপ্ত অশান্তি সৃষ্টি করতেই এক জায়গা থেকে অন্যত্র এই ধরণের আগ্নেয়াস্ত্র সরবরাহ প্রক্রিয়া চলছে বলেই অনুমান পুলিশের৷ অস্ত্রের পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিস্ফোরক আদানপ্রদানও৷ সম্প্রতি টালা ব্রিজের কাছে বিস্ফোরক উদ্ধারের ঘটনা তার সবচেয়ে বড় প্রমাণ৷ লোকসভা নির্বাচনের আগেই ফের একবার বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হল মুর্শিদাবাদের জলঙ্গিতে৷

গ্রেফতার এক অস্ত্র কারবারি৷ ধৃতের নাম নজরুল মণ্ডল ওরফে নাজু। ধৃত নাজু জলঙ্গি থানার টলটলি ঘোষপাড়া গ্রামের বাসিন্দা, এমনটাই পুলিশ সূত্রে খবর। বৃহস্পতিবার রাতে গোপনসুত্রে খবর পেয়ে জলঙ্গি থানার ওসি বিপ্লব কর্মকার টলটলি এলাকায় হানা দিয়ে নাজুকে গ্রেফতার করে। তার বাড়ির পিছন থেকে মাটি খুড়ে উদ্ধার হয় আটটি ৭.৬৫ এমএম পিস্তল, একটি ৯ এমএম পিস্তল, দুটি বড় নলা মাস্কেট, দশটি ফাকা ম্যাগাজিন, কুড়ি রাউন্ড ৭.৬৫ এমএমের গুলি, পাঁচ রাউন্ড ৩০৫ গুলি, আটটি বারো বোরের গুলি।

 

শুক্রবার এক সাংবাদিক সম্মেলন করে জেলা পুলিশ সুপার শ্রী মুকেশ জানান, ধৃত নজরুল মণ্ডল ও তার বৌদি সোনিয়া বিবি মুঙ্গের থেকে অস্ত্রগুলি এনে এলাকায় বিক্রি করত। লোকসভা নির্বাচনের আগে অস্ত্রগুলি চড়া দামে বিক্রির কথা চলছিল দুজনের মধ্যে। পুলিশ খবর পেয়ে হাত বদলের আগেই অস্ত্র সহ ওই কারবারিকে গ্রেফতার করে। তবে আরেক অভিযুক্ত অর্থাৎ নজরুলের বৌদি সোনিয়া বিবি পলাতক। তার স্বামী কেরলে শ্রমিকের কাজ করে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। তার খোঁজেও তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here