kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, উত্তর দিনাজপুর: একদিনে ১৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ।  উত্তর দিনাজপুর জেলার ডালখোলা পুর এলাকায় মোট সংক্রমণের সংখ্যা দাঁড়াল ২০ জন। সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিল ডালখোলা পুর প্রশাসন। অত্যাবশকীয় পণ্য সামগ্রীর দোকানের পাশাপাশি সরকারি অফিস ও ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক খোলা থাকবে বলে প্রশাসন সূত্রের খবর। আগামী ৮ জুলাই থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত চলবে এই লকডাউন পিরিয়ড। করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য রায়গঞ্জ কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গত ৩০ জুন ডালখোলা পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের লোকনাথপাড়ার বাসিন্দা এক মৎস্য ব্যবসায়ী যুবকের করোনায় আক্রান্ত হয়ে শিলিগুড়িতে মৃত্যু হয়। এরপরই জেলা স্বাস্থ্য দফতর ডালখোলা পুর এলাকার বাসিন্দা-সহ মৃতের পরিবারের মোট ২০০ জনের লালারস পরীক্ষার জন্য রায়গঞ্জ গভর্মেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে পাঠানো হয়। তাতে দেখা যায়, ১৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হদিশ মেলে। এরপরই স্থানীয় কাউন্সিলর,  ডালখোলা পুরসভার  প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও পুর প্রশাসক রহমত আলিকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসে উত্তর দিনাজপুর জেলা স্বাস্থ্য দফতর।

ডালখোলা পুরসভার পুর প্রশাসক রহমত আলি জানিয়েছেন,  পুর এলাকায় করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধেই ১৪ দিনের লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ৮ জুলাই থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত চলবে এই লকডাউন। তবে এই লকডাউনে অতি অত্যাবশকীয় পণ্য সামগ্রীর দোকান, সরকারি অফিস এবং ডালখোলা শহরের ওপর দিয়ে যাওয়া ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক খোলা থাকবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here