নিজস্ব প্রতিবেদক, বোলপুর: বাবা নাকি বিজেপির সমর্থক, তাই ধর্ষণের পর নাকি অভিযোগ তুলে নিতে চাপ দিচ্ছে দুষ্কৃতীরা। এমনই মারাত্মক অভিযোগ উঠে এল বীরভূমের বোলপুর থানার সিঙ্গি গ্রাম থেকে।

বোলপুর থানার সিঙ্গি গ্রামের দশম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল বেজরা গ্রামের রাজেশ সরকারের বিরুদ্ধে। নির্যাতিতার মেয়ের বাড়ির তরফে অভিযোগ, ৮ জুন সকাল ৯-৯.৩০টা নাগাদ অভিযুক্ত রাজেশ সরকার সিঙ্গি বাসস্টপ থেকে জোর করে অপহরণ করে ওই নাবালিকাকে। এরপর ভিন্ন ভিন্ন দুই জায়গায় নিয়ে তাঁকে রাখে এবং টানা শুক্রবার থেকে রবিবার ধর্ষণ করে। এরপর নির্যাতিতাতে ১১ জুন সিঙ্গি গ্রামে ছেড়ে দেয় সে। তবে ছাড়ার সময় হুমকি দিয়ে রাখে যে, ধর্ষণের কথা কাউকে জানালে বাড়ির সকলকে খুন করে দেবে ও নির্যাতিতার বিবস্ত্র ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল করে দেবে।

পরদিন সাহস সঞ্চয় করে মেয়েটি সব ঘটনা বাড়িতে জানায়। ঘটনার কথা জানতে পেরে বোলপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতার পরিবার। পুলিশও দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে নেয়।

নির্যাতিতার বাবা দাবি করেন, তিনি বিজেপিকে সমর্থন করার জন্য তার উপর চাপ ও হুমকি আসছিল অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য। বুধবার অভিযুক্তকে বোলপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। নাবালিকা নির্যাতিতাকে সিউড়ি হোমে পাঠানো হয়েছে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here