bengali news on onion

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কয়েক সপ্তাহ আগেও পেঁয়াজের ঝাঁঝে নাকের জলে চোখের জলে দশা হয়েছিল দেশবাসীর। দেশ ছাড়িয়ে বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়েছিল পেঁয়াজ। সময়ের ফেরে এবার কপাল পুড়ল পেঁয়াজের। এক ধাক্কায় প্রায় ৪০ শতাংশ দাম কমেছে পেঁয়াজের। ফল যা হওয়ার তাই, আর কেউ কিনতে চাইছে বিদেশী পেঁয়াজ। যার জেরে মুম্বইয়ের বন্দরগাঁওতে গুদামে পচতে শুরু করেছে বিদেশ থেকে আমদানি করা ৭ হাজার টন বিদেশী পেঁয়াজ। ফলস্বরুপ মাথায় হাত পড়েছে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের।

কয়েকমাস আগে পেঁয়াজের দাম বাড়তে বাড়তে পৌঁছে যায় প্রায় দুশোর কাছাকাছি। বাজারে তখন জোগান একেবারেই নেই পেঁয়াজের। বাধ্য হয়েই বিদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে বাইরে থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে উদ্যত হয় সরকার। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাজার থিতু হতেই সমস্যায় পড়েছে বিদেশি পেঁয়াজ। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, মুম্বইতে গুদামে পড়ে থেকে পচতে শুরু করেছে ৭ হাজার টন বিদেশি পেঁয়াজ। যে পেঁয়াজ ৪৫ টাকা কেজি দরে কেনা হয়েছিল বিদেশ থেকে, সেই পেঁয়াজই এখন সাধারণ বাজারে বিক্রি হচ্ছে মাত্র ২৪ টাকা কেজি দরে। এবং বাজারে দেশী পেঁয়াজের দাম সর্বোচ্চ উঠেছে ৪০ টাকা কেজি।

তবে এখানেই শেষ হয়, অনুমান করা হচ্ছে এভাবে দাম পড়ে যাওয়ার জেরে বিদেশ থেকে আমদানি করা ৮০ শতাংশ পেঁয়াজ নষ্ট হওয়ার জোগাড় হয়েছে। কিছুদিন আগে রাম বিলাস পাসোয়ান জানিয়েছিলেন সরকার মাত্র ৫৫ টাকা কেজি দোরে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। কম দামে বিদেশ থেকে আনা প্রায় ৪০ হাজার টন পেঁয়াজের মধ্যে রাজ্য গুলি নিয়েছে মাত্র ২ হাজার টন পেঁয়াজ। এখনও বিদেশে অর্ডার দেওয়া রয়েছে ২৪ হাজার ৫০০ টন পেঁয়াজ। কিন্তু সেই পেঁয়াজ বাজারে বিক্রি না হওয়া ও দামের পতনের জেরে পচে নষ্ট হচ্ছে গুদামে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here