dilip ghosh bjp

Highlights

  • ইঙ্গিত, আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই নাগরিকত্ব প্রদানের কাজ শুরু করতে পারে কেন্দ্র
  • রাজ্যকে এড়াতে ইতিমধ্যেই অনলাইনে নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়ে জোর দিয়েছে বিজেপি
  • বাড়ি বাড়ি গিয়ে সিএএ বোঝানোর কাজ শেষ করতেই হবে, কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: নাগরিকত্ব আইন লাগু করা নিয়ে বেজায় চাপের মুখে রয়েছে বিজেপি। এ রাজ্যে চ্যালেঞ্জটা যেন একটি বেশিই দিলীপ ঘোষদের সামনে। বিশেষ করে যেভাবে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুর চড়িয়ে রেখেছেন, তাতে রাজ্যের সহযোগিতা পাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। এই অবস্থায় রাজ্যকে এড়িয়েই কীভাবে নাগরিকত্ব দেওয়া যায় সেই পরিকল্পনা করা শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। ইঙ্গিত, আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই নাগরিকত্ব প্রদানের কাজ শুরু করতে পারে কেন্দ্র। তা শুরু হলেও সবার প্রথম এই আইন নিয়ে কীভাবে ইতিবাচক প্রচার দরজায় দরজায় পৌঁছে দেওয়া যায় সেটাই মূল মাথাব্যথার কারণ হয়ে রয়েছে বঙ্গ বিজেপির।

এই নিয়ে শুক্রবারই ন্যাশনাল লাইব্রেরিতে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন দিলীপ ঘোষ। সঙ্গে ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা শিবপ্রকাশ। রাজ্যকে এড়াতে ইতিমধ্যেই অনলাইনে নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়ে জোর দিয়েছে বিজেপি। সেই প্রসঙ্গ টেনেই শিবপ্রকাশ বলেন, ফেব্রুয়ারি মাসেই শুরু হয়ে যাবে অনলাইনে ফর্মপূরণের কাজ। তবে তার আগে প্রচারে জোর দিতে চাইছে বিজেপি। যা সাফ হয়েছে দিলীপের কথাতেই। ‘হাতে খুব বেশি সময় নেই। ফেব্রুয়ারিতে নাগরিকত্ব প্রদানের কাজ শুরুর আগেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে সিএএ বোঝানোর কাজ শেষ করতেই হবে’, কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ।

নাগরিকত্ব বিল পাশ হয়ে গেলেও কবে থেকে এবং কী ভাবে শরণার্থীদের নাগরিকত্ব প্রদানের প্রক্রিয়া শুরু হবে, সেই নিয়ে কিছু জানায়নি কেন্দ্র। তবে দিলীপ ঘোষ সহ শিবপ্রকাশ এদিনই স্পষ্ট করে দিয়েছেন, এই কাজ ফেব্রুয়ারি থেকেই শুরু হবে। রাজ্য যাতে এই প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ না করতে পারে সেটাও কেন্দ্র নিশ্চিত করবে বলে জানিয়েছেন দিলীপ। বলেছেন, ‘অনলাইনে নাগরিকত্ব প্রদানের কাজ চলবে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই সেটা করতে হবে। এ বার সুযোগ ফস্কে গেলে আবার পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হবে। সাধারণ মানুষের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে সেটাই আমাদের বোঝাতে হবে।’ বিজেপি সূত্রে আরও জানানো হয়েছে, এই আইনের সমর্থনে নানা বই এবং লিফলেটও ছাপানো হয়েছে। যেগুলি শিগগির বিলি করার কাজও শুরু হয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here