kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সচেতনতা চলছে। একইসঙ্গে পাল্লা দিয়ে চলছে ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা। সমীক্ষা বলছে, বর্তমানে পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে আতঙ্কিত শীর্ষ মহল। তথ্য বলছে, প্রতি বছর দেশজুড়ে ৩০০ শতাংশ করে বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্যান্সার আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা। এর মধ্যে বেশীরভাগই মুখ, স্তন ও সার্ভাইক্যাল ক্যান্সারে আক্রান্ত।

পরিসংখ্যানের দাবি অনুযায়ী, ২০১৮ সালের তথ্য অনুযায়ী ক্যান্সারে দেশের মধ্যে শীর্ষ স্থানে রয়েছে গুজরাত। তারপর যথাক্রমে রয়েছে কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র, তেলেঙ্গানা ও পশ্চিমবঙ্গ। ২০১৭ সালে গুজরাতে যেখানে ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৯৩৯ জন সেখানেই ২০১৮ সালে সংখ্যাটা দাঁড়ায়, ৭২ হাজার ১৬৯ জন। দিল্লির মতো জায়গায় ২০১৮ সালে সরকারী ক্লিনিকে আক্রান্ত রোগী এসেছেন ৬ কোটি ৫০ লক্ষ। এর মধ্যে মুখ, স্তন ও সার্ভাইক্যাল ক্যান্সারে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১ কোটি ৬ লক্ষ। তথ্যের দাবি, ২০১৭ সালে যেখানে ক্যান্সার আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছিল সাড়ে ৩ কোটি। ২০১৮ সালে তা বেড়ে হয়েছে ৬ কোটি ৬ লক্ষ।

কিন্তু কেন এভাবে বিপুলভাবে বাড়ছে ক্যান্সার? চিকিৎসকদের দাবি, ক্যান্সারের এই বাড়বাড়ন্তের কারণ আমাদের প্রতিদিনের অনিয়ন্ত্রিত জীবন, খাদ্যাভাস ও প্রচুর তামাক সেবন এবং মধ্যপান। যদিও এই মারন রোগ থেকে রক্ষা পেতে চিকিৎসকরা স্তন্যপান ও তামাকজাত দ্রব্য দ্রুত ত্যাগের কথাই বলছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here