শৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়: ‘Your OTP is ****. This OTP is valid only for 3 minutes’. এই ধরনের কোনও মেসেজ কি আপনার ফোনে এসেছে? যদি এসে থাকে তাহলে এখনই সাবধান হন! হ্যাক হতে পারে আপনার ফোন, চুরি হতে পারে সমস্ত তথ্য। যে নম্বর থেকে এই মেসেজ আসছে সেই নম্বর হল ‘17863‘।

এই নম্বর নিয়ে ভয়ের কারণ রয়েছে প্রচুর। কারণ, সাধারণত যোগাযোগের জন্য যে নম্বর হয় তা ১০ সংখ্যার হয়। কিন্তু এই নম্বর ৫ সংখ্যার। তাই এই নম্বর থেকে সচারচর ওটিপি-র মেসেজ আসলে তাতে সন্দেহ হয় বৈকি। অবশ্য ৫ সংখ্যার নম্বর যে হয় না, তা নয়। বিভিন্ন নেটওয়ার্ক সংস্থার প্রমোশনাল নম্বর (যে নম্বর থেকে নানা অফার আসে) তা ৫ সংখ্যারই হয়। কিন্তু তা থেকে ওটিপি আসে না, আসার কথাও নয়। কারণ এই ‘ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড’ বা ওটিপি আসার সম্পূর্ণ অন্য কারণ থাকে। আপনার কোনও কাজে (ব্যাঙ্কের কাজ, অনলাইন ট্রান্সফার, কোনও অ্যাপের রেজিস্ট্রেশন ইত্যাদি) যখন ভ্যারিফিকেশনের প্রয়োজন পড়ে তখন চার সংখ্যার নম্বর যুক্ত একটি মেসেজ সংশ্লিষ্ট মোবাইল নম্বরে চলে আসে। সেই নম্বর ইনপুট করার পরই নির্দিষ্ট কাজ করতে পারেন আপনি। এতএব আপনার কাছে যে ওটিপি আসবে তা আপনি ভাল করেই জানবেন। কিন্তু এক্ষেত্রে তা হচ্ছে না।

ঘটনাটি কী?

হঠাৎ আপনার ফোনে এই ‘17863‘ নম্বর থেকে একটি মেসেজ আসবে, যেখানে একটি ওটিপি নম্বর থাকবে এবং বলা থাকবে তা মাত্র ৩ মিনিটের জন্য ভ্যালিড! যার সম্পর্কে আপনি কিছুই জানেন না।
বিগত কিছু মাস ধরেই এই আতঙ্ক ছড়িয়ে রয়েছে প্রচুর সংখ্যক মোবাইল গ্রাহকদের মধ্যে। প্রথম প্রথম রাত ১২টার পর একবার এই মেসেজ আসত। এখন দিনের যে কোনও সময় একাধিকবার এই মেসেজ আসছে বিভিন্ন মোবাইল নম্বরে, প্রত্যেকবারই ওটিপি নম্বর আলাদা। তথ্য পাওয়া গিয়েছে যে, যাদের কাছে এই ধরনের মেসেজ গিয়েছে তাদের মধ্যে বেশিরভাগ ‘ভোডাফোন’ ব্যবহার করেন। এদের মধ্যে বেশ কয়েকজন ইতিমধ্যেই সংস্থার কাস্টমার কেয়ারে অভিযোগ জানিয়েছেন কিন্তু যা উত্তর পেয়েছেন তা যেমন অবাক করা, তেমনই আতঙ্কের। কারণ, সংস্থার তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই নম্বর এবং ওটিপি আসার বিষয়ে তারা কিছুই জানে না!

আতঙ্ক কোথায়

এই নম্বর এবং এই নম্বর থেকে হঠাৎ আসা ওটিপি নিয়ে এখনও কোনও রফাসূত্র মেলেনি। মোবাইল নেটওয়ার্কিং সংস্থা যেমন এই বিষয় কিছু জানে না, তেমন গ্রাহকরাও নয়। তবে এই মেসেজ আসছে কোথা থেকে? কারাই বা পাঠাচ্ছে? সবচেয়ে বড় প্রশ্ন হল, যাদের থেকে মেসেজ আসছে, তারা সকলের নম্বর পাচ্ছেই বা কোথা থেকে? এই সব প্রশ্নের উত্তর এখনও অজানা। আর ঠিক এই কারণেই গ্রাহকদের মধ্যে আতঙ্ক আরও বেশি পরিমাণে ছড়াচ্ছে।

কী করণীয়

ফোন নম্বর থেকে এই মেসেজ আসা আপনি সাধারণভাবে একটাই উপায়ে আটকাতে পারেন। যখনই আপনার ফোন এই ধরনের মেসেজ আসবে তৎক্ষণাৎ ওই নম্বর ব্লক লিস্টে ফেলে দিন। এছাড়া ‘1909‘ নম্বরে ফোন করে নিজের অভিযোগ জানাতে পারেন বা আপনার নেটওয়ার্ক সার্ভিস প্রোভাইডারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। কোনওরকম ফোন কল বা রিপ্লাই এই নম্বরে না করাই শোভনীয়। কারণ, যেখান থেকে এই মেসেজ আসছে তার কোনওরকম তথ্য আপনার কাছে নেই, তাই নিজে থেকে উত্তর না খোঁজাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। নিজের তথ্য আরও সুরক্ষিত করতে যত দ্রুত সম্ভব এটিএম পিন, মেলের পাসওয়ার্ড, সোশ্যাল সাইটের পাসওয়ার্ড বদলে ফেলুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here