kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক করে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ গতকালের রোড শো প্রসঙ্গে সব দোষ তৃণমূলের ওপর চাপিয়েছেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, কলেজের বাইরে ছিল বিজেপি সমর্থকরা, ভিতরে তৃণমূলীরা। তারাই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে বিজেপির কাঁধে দোষ চাপিয়েছে। কিন্তু অমিত শাহের এই বক্তব্য উড়িয়ে দিয়েছে খোদ বিদ্যাসাগর কলেজের অধ্যক্ষ গৌতম কুণ্ডু। বললেন, বহিরাগতরাই কলেজে ঢুকেছে।

অধ্যক্ষ জানান,

ভেতরের কোনও পড়ুয়াই মূর্তি ভাঙার সঙ্গে যুক্ত হতে পারে না। কারণবাইরে থেকে কলেজে লোক প্রবেশ করেছে। গেটে যে তালা দেওয়া ছিল তা বহিরাগতরাই ভেঙেছে, এবং বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। কলেজের কোনও ছাত্রছাত্রী এই ব্যাপারে যুক্ত নয় বলেই সাফ জানান কলেজের অধ্যক্ষ গৌতম কুণ্ডু।

অমিত শাহ আরও প্রশ্ন তুলেছেন যে, ওত রাত পর্যন্ত কেন কলেজ খোলা ছিল! এই প্রশ্নের জবাবেও বিজেপি সভাপতিকে একহাত নিয়েছেন বিদ্যাসাগর কলেজের অধ্যক্ষ। জানিয়েছেন, কলেজ সাধারণত কিছুটা রাত পর্যন্তই খোলা থাকে। পড়াশুনা না হলেও কলেজের সরকারি অনেক কাজই থাকে, যা স্বাভাবিক ব্যাপার।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক বৈঠকে অমিত শাহ দাবি করেন, মমতার লোকেরাই ভেঙেছে মূর্তি, সহানুভূতি আদায়ের জন্য। আরও বলেন, বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা কলেজের বাইরে ছিল, ভেতরে নয়। ভিতরে তৃণমূলীরাই গণ্ডগোল পাকিয়েছে। এমনকি দরজার তালা কে খুলেছে সেই প্রশ্নও ছোড়েন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here