kolkata news

নিজস্ব প্রতিবেদন: অক্সিজেনের ট্যাঙ্কার লিক করে মৃত্যু ২২ জনের। আজ, বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটে মহারাষ্ট্রের নাসিকে। ঘটনার জেরে হাসপাতালে ছড়াল আতঙ্ক। ঘটনাস্থলে পুলিশ।

গোটা দেশেই লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। মারণ ভাইরাসের আগ্রাসন ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেছে মহারাষ্ট্রে। করোনা রোগীর অন্যতম একটি শারীরিক সমস্যা হল শ্বাসকষ্ট। শ্বাসকষ্ট শুরু হলে সঙ্গে সঙ্গে সংক্রমিতকে অক্সিজেন দেওয়াই দস্তুর। দিন কয়েক ধরে মহারাষ্ট্রে পাল্লা দিয়ে যেমন বাড়ছিল করোনা সংক্রমণ, তেমনি অপ্রতুলতা দেখা দিয়েছিল অক্সিজেন সরবরাহে। এমতাবস্থায় অক্সিজেন ট্যাঙ্কার লিক করে নষ্ট হল প্রচুর পরিমাণ অক্সিজেন।

সূত্রের খবর, মহারাষ্ট্রের নাসিকের একটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন প্রচুর রোগী। তাঁদের মধ্যে ভেন্টিলেশনে ছিলেন ২২জন। তাঁদের নাকে দেওয়া ছিল অক্সিজেনের নল। এদিন সকালে আচমকাই ওই হাসপাতালের অক্সিজেনের ট্যাঙ্কারটি লিক করে। হুহু করে বেরিয়ে পড়ে গ্যাস। সাদা ধোঁয়ায় ভরে যায় চতুর্দিক। সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায় ভেন্টিলেশনে থাকা রোগীদের। হাসপাতাল সূত্রের খবর, অক্সিজেনের অভাবে দম বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয় ওই রোগীদের। খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন স্বাস্থ্য দফতরের লোকজন। আসে পুলিশও। শুরু হয়েছে তদন্ত। কীভাবে অক্সিজেনের ট্যাঙ্কারটি লিক করল, তা জানতে শুরু হয়েছে তদন্ত।

করোনা পরিস্থিতিতে সব চেয়ে বেশি প্রয়োজন অক্সিজেনের। ট্যাঙ্কার লিক করে সেই অক্সিজেনই বাতাসে মিশে যাওয়ায় নষ্ট হল প্রচুর পরিমাণ প্রাণদায়ী গ্যাস। যে গ্যাস পেলে হয়তো বাঁচতেন ওই হাসপাতালের ভেন্টিলেশনে থাকা ২২ জন রোগী।   

       

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here