imran khan and narendra modi news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: একটা মারণ ভাইরাস মিলিয়ে দিল দুই শত্রু দেশকে। অবশেষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রস্তাবে সাড়া দিল পাকিস্তান। নোভেল করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে দক্ষিণ এশিয়ার সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত সকল দেশগুলিকে একসঙ্গে লড়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। শুক্রবার এই আবেদন জানিয়ে সমস্ত রাষ্ট্রপ্রধানদের একত্রে বিষয়টি নিয়ে ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। সকলেই এই প্রস্তাবে রাজি হয়েছিল, বাকি ছিল কেবল পাকিস্তান। শনিবার ইসলামাবাদের তরফেও জানিয়ে দেওয়া হয়, পাকিস্তান এই ভিডিয়ো কনফারেন্সে যোগ দেবে।

ইতিমধ্যেই কোভিড ১৯-কে অতিমারি বা আন্তর্জাতিক মহামারী হিসেবে ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। যার পর থেকে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে সমস্ত দেশে। ভারতেও এর প্রত্যক্ষ প্রভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই ৮৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন, দু’জন প্রাণ হারিয়েছেন। নড়েচড়ে বসেছে সরকার। তারপরই মোদী জানান, প্যানডেমিক নোভেল করোনভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে সার্ক অন্তর্ভুক্ত দেশগুলিকে একসঙ্গে ব্যবস্থা নিতে হবে। সেই উদ্দেশ্যে এই সব দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের ভিডিয়ো কনফারেন্স করার প্রস্তাব দিয়ে শুক্রবার ট্যুইট করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

অন্যান্য দেশগুলির তরফে সাড়া দেওয়া হলেও পাকিস্তান ছিল নিরুত্তাপ। সেই ইমরান খানের দেশের তরফেই এদিন টুইট করে প্রধানমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দেওয়া হয়। পাক বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ট্য়ুইট করে বলেন, ‘করোনাভাইরাসের আতঙ্ক যে ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক স্তরে একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষ সহযোগী এই ভিডিয়ো কনফারেন্সে অংশ গ্রহণ করবে।’ অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আবেদনে ইতিমধ্যেই সাড়া দিয়েছে নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, মালদ্বীপ, আফগানিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। এসব দেশের রাষ্ট্রপ্রধান বা তাদের মুখপাত্ররা নমোকে তাদের সমর্থনের কথা জানান।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here